কারি পাতা দিয়ে কিভাবে বন্ধ করবেন চুল পড়া?

Video Description

কারি পাতা দিয়ে কিভাবে বন্ধ করবেন চুল পড়া? জন্মসূত্রে দক্ষিণী, কিন্তু বাঙালির রান্নাঘরে তার অবাধ আনাগোনা। কারিপাতার কথা বলছি। বাঙালি বাড়ির একচিলতে কিচেন গার্ডেনে বা নেহাতই টবের মাটিতে হামেশাই দেখা মেলে কারিপাতার। যে কোনও রান্নার স্বাদ আর গন্ধ কয়েকগুণ বাড়িয়ে দিতে তার জুড়ি মেলা ভার! শুধু কি রান্না? দৈনন্দিন রূপচর্চার ক্ষেত্রেও কারিপাতার মহিমা অসীম, বিশেষ করে চুলের ক্ষেত্রে। কারিপাতার টোটকা দিয়েই কমিয়ে ফেলতে পারেন আপনার চুল সংক্রান্ত একাধিক সমস্যা। শুষ্ক চুলের জন্য তিন-চার চামচ নারকেল তেল গরম করে তাতে কয়েকটি কারিপাতা ফেলে নিভু আঁচে কয়েক মিনিট রাখুন। আঁচ থেকে সরিয়ে ঠান্ডা হতে দিন, তারপর তেলটা ছেঁকে নিয়ে স্ক্যাল্প আর চুলে মাসাজ করুন। কুড়ি মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলবেন। চুলের বাড়বাড়ন্তের জন্য কারিপাতায় প্রচুর ভিটামিন বি রয়েছে যা চুলের গোড়া শক্ত করে চুল বাড়তে সাহায্য করে। টক দইয়ের সঙ্গে কারিপাতা বাটা মিশিয়ে নিন। হেয়ার মাস্কের মতো চুলের গোড়ায় আর চুলে মেখে কুড়ি মিনিট রাখুন তারপর শ্যাম্পু করে নিন। চুল ওঠা কমাতে কারিপাতার গুণ কাজে লাগিয়ে বিদায় দিন চুল ওঠার সমস্যাকে। তিন-চারটে কারিপাতা বেটে নিন, তাতে কয়েক ফোঁটা দুধ মেশান। এই মিশ্রণটা দিয়ে স্ক্যাল্পে ভালো করে মাসাজ করুন। আধঘণ্টা রেখে ধুয়ে ফেলবেন। পাকা চুল কমাতে অকালে চুল পেকে যাচ্ছে? হাতের কাছেই রয়েছে কারিপাতার ভরসা। কিছু শুকনো কারিপাতা গুঁড়ো করে নিন। তারপর খাঁটি নারকেল তেলে কারিপাতার গুঁড়োটা দিয়ে গরম করুন। তেলের রংটা ধীরে ধীরে সবুজ হতে শুরু করবে। তেলে ভালোমতো রং ধরলে আঁচ থেকে নামিয়ে ঠান্ডা করে মাথায় মাসাজ করুন। কয়েক সপ্তাহ করলে পাকা চুলের সংখ্যা অনেক কমে যাবে। রুক্ষ উড়ো চুল বশ করতে দু’কাপ জল ফুটিয়ে নিন, তাতে আধ কাপ কারিপাতা দিয়ে ফোটান। জলটা কমে অর্ধেক হয়ে গেলে আঁচ নিভিয়ে ঠান্ডা হতে দিন। শ্যাম্পু করার পর চুল ধোওয়ার সময় ফাইনাল রিন্স হিসেবে এই জলটা ব্যবহার করুন। চুল অনেক কোমল আর মসৃণ দেখাবে।

Join more than 1 million learners

On Spark.Live, you can learn from Top Trainers right from the comfort of your home, on Live Video. Discover Live Interactive Learning, now.