সরস্বতী পুজোর আগে কুল না খাওয়ার নিয়ম কেন জানেন ? (Why do we not eat jujube before Saraswati puja? )

  • by

সরস্বতী দেবীকে তুষ্ট করার জন্য মহামুনি ব্যাসদেব বদ্রিকাশ্রমে তপস্যা করেছিলেন , তপস্যা শুরুর আগে তার তপস্যা স্থলের কাছে একটি কুলের বীজ রেখে দেবী একটি শর্ত দেন , এই কুলবীজ অংকুরিত হয়ে চারা , চারা থেকে বড় গাছ , বড় কাছে ফুল থেকে নতুন কুল হবে। দেবী বলেন, যেদিন সেই কুল পেকে ব্যাসদেবের মাথায় পতিত হবে, সেইদিন তার তপস্যা পূর্ণ হবে এবং সরস্বতী দেবী তুষ্ট হবেন।

ব্যাসদেব সেই শর্ত মেনে তপস্যা শুরু করেন। ধীরে ধীরে বীজ থেকে গাছ, গাছ থেকে কুল তৈরী হয় , একদিন কুল পেকে ব্যাসদেবের মাথায় পরে তখন ব্যাসদেব বুজতে পারেন যে , সরস্বতী দেবী তার প্রতি তুষ্ট হয়েছেন, সেদিন ছিল পঞ্চমী। সেদিন সরস্বতী দেবীকে কুল নিবেদন করে অর্চনা করে তিনি ব্রম্ভপুত্র রচনা শুরু করেন। শ্রীপঞ্চমীর দিন সরস্বতী দেবী তুষ্ট হয়েছিলেন তাই আমরা এই দিনের আগে কুল খাইনা। পঞ্চমীতে দেবীকে পুজো করে কুল নিবেদন করে তারপরেই সকলের কুল খাবার রীতি রয়েছে।

অন্যদিকে, এই প্রসঙ্গে মুখে মুখে প্রচলিত একটি কারণও রয়েছে, বাঙালিদের ঘরে। যেহুতু কুল হল একটি মরশুমি ফল, মানে এই শীতকাল ও বসন্ত কালের মাঝামাঝিতে কুল ধরে গাছ গুলিতে। আর সরস্বতী পূজার আগে কুল গুলি ভালো মতো খাবার উপযোগী হয়ে ওঠে। এই সময়েই বীণাপানি দেবীর আরাধনায় তাই তাই এই মরশুমি ফলটি তুলে রাখা হয় দেবীর জন্য। আগে তাকে নিবেদন করে তবেই তা প্রসাদ হিসেবে এবং পরে যত খুশি খান বাঙালিরা।

এর মাধ্যমে বাঙালিদের আতিথেয়তা, সাথে ভক্তি সব গুণগুলি প্রকাশ পায়। হিন্দু শাস্ত্র অনুসারে, সকল দেবদেবীর আলাদা আলাদা পছন্দের খাদ্যবস্তুর বর্ণনা পাওয়া যায়। গণেশ ঠাকুর যেমন পছন্দ করে লাড্ডু, তেমনি বিদ্যার অধিষ্ঠাত্রী দেবীর পছন্দ এই কুল, বিশেষ করে নারকেলী কুল। তাই পূজার প্রসাদের মধ্যে কিন্তু নারকেলি কুল থেকেই, যেন তা ছাড়া পূজা সম্পন্ন হয় না।

গতানুগতিক ভাবে চলে আসছে এই প্রথা। আগে সরস্বতী দেবীকে মরশুমি তার এই প্রিয় ফল নিবেদনের পরেই, বাঙালির মুখে ওঠে এটি। আবার স্কুল কলেজের ছাত্র ছাত্রীদের মনে ভয়ও আছে। পাচ্ছে পূজার আগেই কুল খেয়ে ফেললে, পরীক্ষায় কম নাম্বার আবার ফেলও হওয়ার সম্ভাবনা থেকে যায়। কি তাই তো?

আবার স্বাস্থ্যগত কারণেও সরস্বতী পুজোর আগে কুল খাওয়া ঠিক নয় , কারণ মাঘ মাসের মাঝামাঝি সময়ের আগে কুল কাঁচা কষযুক্ত থাকে তাই তখন তা খেতেও ভালোলাগেনা। তাই সব মিলিয়ে সরস্বতী পূজা আর কুল সম্পর্কিত এই গতানুগতিক প্রথা মানতে কিন্তু নারাজ নয় আপামর বাঙালি। আপনি পূজার আগে কুল খান? কমেন্টে জানান আমাদের।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।