চুলের ক্ষতি করবে না কোন তিনটি ট্রেন্ডিং হেয়ার স্ট্রেইটনার? (Top three trending hair straightener )

  • by

ঝটপট হেয়ার স্টাইলটি বদলে নিয়ে একেবারে পার্টি রেডি হয়ে ওঠার মূল হাতিয়ারটি এখন হেয়ার স্ট্রেইন্টনার ছাড়া কিছুই নয়. কারণ, গতানুগতিক মানে প্রতিদিনের হেয়ার স্টাইল তো আর রিপিট করা যায়না, পার্টি বা অন্য্ কোন অকেশনে যোগ দেওয়ার আগে. আর ওই যে আমাদের হাতে সময় এতটাই কম, যে আমরা পার্লার মুখী বেশি হয়ে পড়েছি. কিন্তু বার বার ছোট খাটো প্রোগ্রামের জন্য তো পকেটের পয়সা খরচ করে পার্লারে দৌড়ানো যায় না. তখন কিন্তু একমাত্র সমস্যা সমাধান করে হেয়ার স্ট্রেইটনার.

চুলে শ্যাম্পু করার পর, শুকিয়ে নিয়ে, একটু জেল বা কোনো লোশন লাগিয়ে, নিজের পছন্দমতো হেয়ার স্টাইলটি করার আগে, বার কয়েক স্ট্রেইটনার দিয়ে চুল হিট করে নিলেই ব্যাস. কিন্তু এই সবের মাঝে যেটি খারাপ হয়, সেটি হল আপনার চুল. বার বার হেয়ার স্ট্রেইটনার ব্যবহারের ফলে দেখা গেছে, চুলের বেশি পরিমানে ঝড়তে শুরু করা. তাই যে কোন হেয়ার স্ট্রেইটনার ব্যবহার করলেই চলবে না. দেখে নিতে হবে, কোন স্ট্রেইটনার গুলি আপনার চুলের জন্য বিপদজ্জনক নয়. কারণ মার্কেটে কিন্তু সেরকম হেয়ার স্ট্রেইটনারের বেশ কিছু খোঁজ পাওয়া যায়.

তো আপনাদের জন্য রাখা থাকলো সেরকমই কিছু হেয়ার স্ট্রেইটনারের খোঁজ –

১. ফিলিপ্স এইচপি৮৩০২ এসেন্সিয়াল সেলফি স্ট্রেইটেনার

এই স্ট্রেইটনারটির অন্যান্যদের থেকে বিশিষ্টতা হল – স্লিকপ্রো কেয়ার থাকায়, খুব বেশি গরম হয় না. মানে চুলের যতটুকু হিটের প্রয়োজন, তার অতিরিক্ত হয় না. এটির সিরামিক প্লেটস আছে যার দরুন,

অনেক বেশি সিল্কি আর স্মুথ দেখায়, এটির ব্যবহারে. এমনকি এটি ছোট চুলের জন্যও কোনো অসুবিধা হয় না ব্যবহার করতে.

এটি দিয়ে চুল স্ট্রেইট করার পর প্রায় তিন ঘন্টা টানা, চুল স্ট্রেইট থাকে. যাদের চুলে পার্মানেন্ট স্ট্রেইটনিং আছে তাদের বিষয়টি আলাদা. কিন্তু যাদের নরমাল চুল, তাদের কিন্তু এটির ব্যবহারের প্রভাব লক্ষ্য করা যায় ভালো ভাবে. আর চুলের ক্ষতিও তেমন করেনা.

২. হাভেলস এইচএস4101 হেয়ার স্ট্রেইটেনার উইথ সিরামিক কোটেড প্লেটস

নামেই পরিচয় পেয়েছেন নিশ্চই এই হেয়ার স্ট্রেইটনারটির. যে কোনো হেয়ার স্ট্রেইটেনারে যদি সিরামিক প্লেট থাকে, তো সেটি আপনার চুলের জন্য খুব ক্ষতিকারক নয়. হাভেলসের এই হেয়ার স্ট্রেইটেনারেও আছে এই প্লেটটি. এটি ব্যবহারের মাত্র ৪৫ সেকেন্ডের মধ্যে হিট আপ করে. ফলে চটজলদি, হেয়ার স্টাইলের জন্য বেস্ট.

এটির একটি সুন্দর লুক্সের সাথে খুব ভাবেই ট্রাভেল ফ্রেন্ডলি. আপনার ব্যাগের মধ্যে খুব সহজেই এডজাস্ট হয়ে যাবে.

৩. কেমেই কেএম-329 প্রফেশনাল হেয়ার স্ট্রেইটেনার

একবার আগে এটির ইউসার রিভিউসের ওপর চোখ বুলিয়ে নিন. তাহলেই, বুঝতে পারবেন কেন এই স্ট্রেইটনেরটির নাম করা হচ্ছে. দাম কম দেখে অনেকেরই ডাউট হতে পারে, এটির কার্যকারিতা নিয়ে. কিন্তু না এটি আপনার চুলে খুব তাড়াতাড়ি হিট দিয়ে আপনার ইচ্ছামতো হেয়ার স্টাইলটিকে পরিণতি দিতে সাহায্য করে. এটির হিট আপ টাইম- মাত্র ৩০ সেকেন্ড.

এটিতেও সিরামিক কেয়ারিং এর প্রলেপ সুস্পষ্ট. ফলে যতই এটির টেপে আপনার হেয়ার স্টাইলটি করুন না কেন, আপনার চুলের কোন ক্ষতি করবে না. বরং খুব সময়েই একটা সিল্কি লুক দেবে.

তো আপনি যদি এখনো ভাবছেন কি করবেন বা কোন হেয়ার স্ট্রাইনেরটি আপনার জন্য বেস্ট, তাহলে এতক্ষনে নিশ্চয়ই ওপরের তালিকা থেকে বুঝতেই পেরেছেন. তো আর দেরি কেন? ওপরের লিঙ্কগুলিতে ক্লিক করে এখুনি অর্ডার দিয়ে দিন আপনার পছন্দের হেয়ার স্ট্রেইটনেরটির. আর এখন থেকে আপনিও নিজে বাড়িতেই করে ফেলুন নিজের আকাঙ্খিত হেয়ার স্টাইলটি.

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।