সুকণ্ঠ পেতে নিজের রেকর্ড করা গান বার বার শুনে ভুল-ভ্রান্তিগুলি নির্ধারণ করতে হবে: সংগীত শিক্ষিকা দেবযানী (To get a good voice, you have to listen to your own recorded song over and over again and fix the mistakes: Singing teacher Debjani Majumder )

আমাদের অনেকেরই এমন একজন সঙ্গীত শিক্ষক বা শিক্ষিকার খোঁজ থাকে যার কাছে আমরা যে কোন একপ্রকার সংগীতচর্চা নয়, সব ধরণের গান শিখতে পারবো। কারণ একজন দক্ষ সংগীত প্রশিক্ষক এবং সংগীতশিল্পীর পরিচয়ই হল – যিনি সব ধরণের গান গাইতে পারদর্শী। Spark.Live-এ রয়েছেন এমনই একজন স্বনামধন্য সংগীত শিক্ষিকা, যিনি দীর্ঘ ৫০ বৎসর যাবৎ সংগীত প্রশিক্ষণ ও চর্চার সাথে যুক্ত রয়েছেন – দেবযানী মজুমদার। সংগীত চর্চা সম্বন্ধীয় একাধিক ডিগ্রি যেমন তিনি অর্জন করেছেন, ঠিক তেমনি দেশের নানা প্রান্তের স্কুলে একজন যখন সংগীত শিক্ষিকা রূপে কর্মরত ছিলেন। একসাথে ১৩ প্রকারের গান তিনি গাইতে এবং শিখতে সক্ষম। চলুন তার কাছ থেকেই সংগীত বিষয়ক কিছু তথ্য নেওয়া যাক –

১. সংগীত আমাদের মনকে খুশি করে, আমাদের স্বত্ত্বাকে আনন্দে ভরিয়ে তোলে, এমন কিছু বলুন যেটি সংগীতের বিষয়ে আমাদের অজানা

উ:- সঙ্গীত প্রকৃতি এবং মানুষের বিকাশের মাধ্যম। আমরা এমন অনেক ঐতিহাসিক ঘটনা জানি যে ভারতীয় রাগ সঙ্গীতের মাধ্যমে প্রাকৃতিক আবহাওয়ার পরিবর্তন বা অন্যান্য প্রানীর মানসিক অবস্থার পরিবর্তন ঘটেছে। আমরা এমন অনেক মানসিক অবস্থার প্রত্যক্ষ ভাবে সম্মুখীন হই সেইটাকে ভালো করে ভেবে দেখলে সংগীতের যোগ অপরিসীম। ফলে যে কোনো অবস্থাতে কোনো ভালো গান বা বাজনা শুনলে আমাদের মন ভালো থাকে তেমনি স্বাভাবিক ভাবেই কর্কশ কোনো কিছু শুনলেই মনের মধ্যে ক্রোধ ও বিদ্বেষ সৃষ্টি হয়।

পঞ্চাশ বছরের অভিজ্ঞতাসম্পন্ন সঙ্গীত শিক্ষিকা দেবযানী মজুমদারের কাছে ১৩ প্রকারের গান শিখতে এই লিংক/ বটনে ক্লিক করুন – https://spark.live/consult/learn-13-musical-forms-with-experienced-singer-debjani-mazumdar-bangla/

২. শরীরের সুস্থ্যতা বা উন্নত মানসিক স্বাস্থ্য পেতে সংগীত কোনোভাবে কি সাহায্য করতে পারে? বা কোন কোন অসুস্থ্যতার থেকে মুক্তি দিতে পারে সংগীত-চর্চা?

উ:-শরীরের সুস্থ্যতা এবং উন্নত মানসিক স্বাস্থ্য পেতে সংগীতের যোগাযোগ অপরিসীম। কারণ, একমাত্র চিকিৎসা শাস্ত্রেই সংগীতের ব্যবহার আমরা লক্ষ্য করতে পারি। যেমন- জটিল অস্ত্র পাচারের আগে এবং পরে সঙ্গীতকে ব্যবহার করেই রোগীকে সম্পূর্ণ ভাবে সুস্থ করে তোলা সম্ভব হয়েছে। দ্বিতীয়ত, মানসিক রোগীর ক্ষেত্রে সংগীত অতন্ত্য সুফলদায়ক।

কবি কাজী নজরুল ইসলামই এর প্রকৃত উদাহরণ। বয়সকালে উনি যখন মানসিক ভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছিলেন, তখন আশেপাশে চলা ভালো গানে সারা দিতেন। এছাড়াও সংগীতের ব্যবহারে অর্টিজিম রোগে সংগীত ব্যাবহারে যথেষ্ট সুফলদায়ক ফল পেয়েছে। তাই আমরা বলতেই পারি চিকিৎসায় সংগীতের ব্যাবহার অতুলনীয়। এছাড়াও কোনো রোগীর অস্ত্রপাচারের আগে তাকে যদি গান শোনানো যায় তবে সে তার ভয় এবং কষ্ট সবটাই দূর করতে পারবে। ফলে আমরা বলতেই পারি সংগীত আমাদের মানসিক স্বাস্থ্য ভালো রাখতে অতন্ত্য উপকারী।

পঞ্চাশ বছরের অভিজ্ঞতাসম্পন্ন সঙ্গীত শিক্ষিকা দেবযানী মজুমদারের কাছে ১৩ প্রকারের গান শিখতে এই লিংক/ বটনে ক্লিক করুন – https://spark.live/consult/learn-13-musical-forms-with-experienced-singer-debjani-mazumdar-bangla/

৩. গলার স্বরকে নিপুন করে তুলতে, কিভাবে রেওয়াজ করা উচিত?

উ:- এবিষয়ে বহু মতামত রয়েছে। তাহলেও গলার স্বরকে নিপুন করে তুলতে প্রধান কাজ হলো রেওয়াজ। রেওয়াজ ছাড়া কখনোই গলার স্বরকে নিপুন করে তোলা সম্ভব পর নয়। অবশ্যই এর মধ্যে ব্যতিক্রমী অনেকেই আছেন।

শুধু রেওয়াজ করলেই হবে না। রেওয়াজেরও কিছু রীতিনীতি রয়েছে। রেওয়াজ করতে বসলে সোজা হয়ে স্থির হয়ে বসতে হবে এবং মনোসংযোগ বাড়াতে হবে। এছাড়াও রেওয়াজ করার সময় আয়নার সামনে বসাটা খুবই জরুরী তার কারণ গান করার সময় আমার মুখভঙ্গি ঠিকঠাক না থাকলে অনেক শ্রোতাদের মনেই গানের প্রতি বিতৃষ্ণা জন্মাবে। এছাড়াও আপনার রেকর্ড করা গান আপনি বারবার শুনবেন। ফলে বুঝতে পারবেন আপনার ভুলভ্রান্তি গুলো। এতেই আপনার গলার স্বর নিপুন হয়ে উঠতে পারে।

৪. গানের গলাকে সুমধুর করে তুলতে ক্ল্যাসিক্যাল সংগীত-চর্চার দিকে কি বিশেষ নজর দেওয়া উচিত এবং কেন?

উ:- সবচেয়ে বড় কথা যে বিষয়টা নিয়ে আপনি শিখবেন তার ব্যাকরণটাকে আপনাকে জানতে হবে এবং আয়ত্তে আনতে হবে। ফলে ভালো গান গাইতে গেলে ক্লাসিক্যাল চর্চা অতন্ত্য আবশ্যকীয়। ক্লাসিক্যাল গান শিখতেই হবে তার কারণ আপনি কিভাবে স্বরক্ষেপণ করবেন কেমন করে স্বরটাকে কাজে লাগাবে এবং কিভাবে তা করলে সেইটা শুনতে ভালো লাগবে, সেইটা একমাত্র ক্লাসিক্যাল শিক্ষার মাধ্যমেই জানা সম্ভব।

পঞ্চাশ বছরের অভিজ্ঞতাসম্পন্ন সঙ্গীত শিক্ষিকা দেবযানী মজুমদারের কাছে ১৩ প্রকারের গান শিখতে এই লিংক/ বটনে ক্লিক করুন – https://spark.live/consult/learn-13-musical-forms-with-experienced-singer-debjani-mazumdar-bangla/

৫. আপনি এতবছর ধরে সংগীত-চর্চার সাথে যুক্ত, একজন প্রতিষ্ঠিত সংগীত-বিশারদ, আপনার কাছে অনলাইন সেশনে সকলে কি কি শেখার সুযোগ পাবেন?

উ:- সঙ্গীতের একদম প্রথম থেকেই আপনারা এই সেশনের মাধ্যমে শিক্ষালাভ করতে পারবেন। এছাড়াও রবীন্দ্র সঙ্গীত, অতুল প্রসাদ, দ্বিজেন্দ্র-গীতি, পল্লিগীতি, লোকসংগীত, পুরাতনী বাংলা গান, গজল, ঠুংরি, টপ্পা সবটাই আপনারা শিখতে পারবেন, তাও সম্পূর্ণ অনলাইনে। অর্থাৎ, বাড়িতে বসে নিজের মুঠোফোন বা ল্যাপটপ বা কম্পিউটারের মাধ্যমে, আমার সেশনের লিংকে ক্লিক করলেই সরাসরি ক্লাস করার সুযোগ পাবেন। ১৩ প্রকারের সংগীত প্রশিক্ষণ আমি দিয়ে থাকি।

তো আর দেরি কিসের? সাময়িক গৃহবন্দী এই সময়টিকে নিজের গানের গলা সুন্দর করে তোলার ক্ষেত্রে ব্যবহার করুন, বাড়িতে বসেই সংগীত শিক্ষিকা দেবযানী মজুমদারের সেশন নিয়ে হয়ে উঠুন সুরেলা কণ্ঠের অধিকারী। জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে সংগীতকে সঙ্গী করে তুলুন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।