‘ সাত পাকে বাধার ‘ কারণগুলি জানেন কি? (The significance of seven rounds of Hindu marriage.)

  • by

বিয়ে মানে শুধু দুজনের মিলন নয় , দুটো আত্মারও মিলন যা সাত জন্মের জন্য হয়ে থাকে , আর এই সাত জন্মের প্রতিজ্ঞাকে আরো বেশি মজবুত করতেই বিয়ের সময় সাত পাক ঘোড়ার নিয়ম রয়েছে।  অগ্নিসাক্ষী করে বর ও কোনে সাত পাকে ঘুরে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হন যে সুখে দুঃখে সময়ে অসময়ে ভালো মন্দে সবসময়ে তারা একে অন্যের সাথে থাকবেন , কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে জীবন অতিবাহিত করবেন , হিন্দু বিয়েতে সাত পাক ঘোড়ার সময় অনেক মন্ত্র পড়া হয় , বর ও কোনে পুরোহিতমশাই এর বলা মন্ত্র অনেকসময় না বুঝেই শুধু উচ্চারণ করে যান , কিন্তু প্রতি মন্ত্রেরই  এক একটি অর্থ রয়েছে যা বিবাহিত জীবনে প্রতি পদক্ষেপে কাজে লাগে, তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক সাত পাকের মাহাত্ম্য –

প্রথম পাক-

পবিত্র অগ্নির সামনে দাঁড়িয়ে বর কনেকে কথা দেন বিয়ের দিন থেকে কনের ভরণ পোষণের দায়িত্ব তার , উত্তরে কোনে প্রতিজ্ঞা করেন যে সংসারের সুখের জন্য খুঁটিনাটি বিষয়ও তিনি নজরে রাখবেন।

দ্বিতীয় পাক –

Taking the Saat Phere

বর ও কোনে একে অন্যকে প্রতিজ্ঞা করেন যে তারা জীবনেও সব ওঠা পড়ায় তারা একে অন্যের সাথে থাকবেন , যেকোনো বিপদ এ দুজন দুজনের পশে থেকে দুজনকে রক্ষা করবেন এই কথা দেন ,

তৃতীয় পাক –

বর ও কোনে একে ওপরের পার্থিব  সুখের  দিকে নজর দেবেন এই প্রতিজ্ঞা করেন , একইসঙ্গে আধ্যাতিক পথেও হাঁটবেন সেই কথা দেন।  

চতুর্থ পাক –

বর কনেকে কথা দেন সর্বাঙ্গে তিনি তার স্ত্রী এর সন্মান রক্ষা করবেন , স্ত্রী ও কথা দেন তিনি আজীবন তার স্বামীকে একইভাবে ভালোবাসবেন।

পঞ্চম পাক –

বর ও কোনে একসঙ্গে প্রার্থনা করেন যাতে তারা তাদের সংসার আনন্দ ও সমৃদ্ধিতে পূর্ণ করে রাখতে পারেন , দুজন দুজনের সব থেকে কাছের বন্ধু হওয়ার অঙ্গীকার করেন।

ষষ্ঠ পাক –

সারাজীবন একে ওপরের সঙ্গে থাকবেন এই প্রতিজ্ঞা করেন।

সপ্তম পাক-

এই শেষ পাকে  বর বলেন এখন থেকে আমরা স্বামী স্ত্রী হলাম , এখন থেকে আমরা এক, কোনেও তাতে সহমত দেন৷

আর বুঝতে হয়তো অসুবিধা নেই, কতটা গুরুত্ব বহন করে বিয়ের সাতটি পাক৷ নিজেও জানুন এবং সকলকে জানতে সাহায্য করুন এই বিষয়টি৷

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।