উপকার পেতে সঠিক নিয়মে খান শশা (The right way to eat cucumber)

  • by

শসা এমন একটা ফল যার নানান উপকারিতা আছে। এক শসাই আপনার শরীরে করবে একেবারে চাঙ্গা। শুধু স্কিন ভালো রাখে তা নয়, যৌবনও ধরে রাখে, ফিটনেসের সাহায্য করে, হজমের জুড়ি মেলা ভার। কিন্তু জানেন কি? আমরা নিয়মিত যেভাবে শসা খেয়ে থাকি সেভাবে শসা খেলে কিন্তু উপকার নেই বরং আমরা নিজেরাই নিজের অপকার।তবে যারা শসার গুণ জানেন না বা শসাই খান না, তাদের জন্য রইল কিছু টিপস।

কি কি ভাবে উপকার করে শশা-

1।শসার মাল্টিভিটামিন ও মাল্টিমিনারেল প্রাকৃতিক ঔষধ হিসাবে কাজ করে মিনারেলস ও ভিটামিন এর অভাব জনিত সমস্যা হলে শসা খাওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা ।

2।ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য উপকারী শসা।নখ,দাঁত, মাড়ি ভালো রাখতে শসা খাওয়া আবশ্যক।

3। গরমের সময় দেহের তাপমাত্রা স্বাভাবিক থাকে দিনে দিনে যা গরম বাড়ছে এমন অবস্থায় দেহের তাপমাত্রা স্বাভাবিক রাখতেই শসা খাওয়াটা জরুরি। শুধু তাই নয় প্রচন্ড তাপের ফলে ত্বক পুড়ে গেলেও সেখানে শসা লাগাতে পারেন। কারণ পোড়া ভাব কমাতে শসা বিশেষ ভূমিকা পালন করে।

4। শরীর সচল রাখতে ভিটামিনের প্রয়োজন, সেই ভিটামিনের যোগান ঠিক রাখতে শসা খাওয়ার কারণ এতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি, ভিটামিন এ এবং ভিটামিন বি থাকে। যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার উন্নতি ঘটায় ।পাশাপাশি এনার্জি ঘাটতি দূর করতে এবং ত্বকের উজ্জ্বল ভাব বাড়াতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে।

এবার বলি কিভাবে খাবেন এই শসা-

আমরা প্রতিনিয়ত ও যেভাবে শসা খাই নুন মাখিয়ে সেটা কিন্তু কোন উপকারেই দেয় না। তাহলে উপায়-

দুটো শসা গোল গোল করে কেটে নিন। মিক্সারে কাটা শসা দিয়ে তার মধ্যে ছোট চামচ পাতিলেবুর রস ,মিশিয়ে একটু জিরে পাউডার, দু’তিনটে পুদিনাপাতা এবং সামান্য বিট নুন দিয়ে ভাল করে ঘুরিয়ে তৈরি করুন juice ।চিকিৎসকরা বলছেন এটি নিয়মিত খেলে অতিরিক্ত মেদ কমবে ,ফিটনেস আসবে এবং এটি ত্বকের জন্য দারুন উপকারী।

এরকম হাজার গুণ এর বাহক এই শসা ।তাই নিজের ত্বক ,নিজের ফিটনেস ,নিজের ত্বকের সৌন্দর্য ধরে রাখতে রোজ খাওয়া দরকার শসা। তবে মনে রাখবেন মাত্রাতিরিক্ত কখনোই নয়।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।