ডিপ্রেশনে ভুগছেন? আপনার হতাশা মোকাবিলার জন্য রয়েছে নানান সহজ সমাধান (Suffering from depression? There are many simple solutions to deal with your depression)

ডিপ্রেশন থেকে নিজেদের সরিয়ে রাখার জন্য বেশ কিছু উপায় রয়েছে শুধু সেগুলো সঠিক সময়ে খুঁজে বার করা প্রয়োজন, সেই কারণে Spark.Live এ রয়েছেন স্বনামধন্য বিশিষ্ট সব মনোবিদেরা

ডিপ্রেশন বা হতাশার নানান কারণ
ডিপ্রেশন বা হতাশা যেন এক নিত্য সঙ্গী হয়ে দাঁড়িয়েছে আমাদের, কিন্তু আমাদেরকে ভালো থাকতে গেলে ডিপ্রেশনের মোকাবিলা করতেই হবে। যেকোনো সময়েই ডিপ্রেশন মনে বাসা বাঁধতে পারে, বিশেষত তা হয় বর্ষাকালে। বর্ষাকাল যে বেজায় রোমান্টিক ঋতু, সে বিষয়ে আমাদের কোনও সন্দেহ নেই। কিন্তু একথাও ঠিক যে বছরের এই সময় নানা অসুখের প্রকোপ বেড়ে যায়, তেমনি মানসিক অবসাদে ভোগার আশঙ্কাও থাকে। বেশ কিছু রিসার্চ অনুসারে বছরের এই সময় নানা কারণে মেলাটোনিন এবং সেরোটোনিন নামক দুটি হরমোনের ক্ষরণও ঠিক মতো হয় না, যার প্রভাবে ডিপ্রেশনের খপ্পরে পড়ার আশঙ্কা থাকে আমাদের। তবে আরেকটা কারণেও এই সময় মন বড় খারাপ হয়ে যাচ্ছে কারণ বর্তমানে যা কঠিন পরিস্থিতি চলছে COVID19 এর প্রকোপ, সঙ্গে আবার ঝড়-বৃষ্টি লেগেই রয়েছে, তার উপর সংক্রমণের ভয়ে বাড়ি থেকে বেরোনোর উপায়ও নেই। ফলে সারাক্ষণ বাড়িতে থাকার কারণে স্বাভাবিকভাবেই অবসাদ যেন আমাদের ঘাড়ে চেপে বসে, সঙ্গে তৈরী হয় ক্লান্তি এবং খিদে কমে যাওয়ার মতো সমস্যাও। এক্ষেত্রে মনকে ভালো রাখার কিছু উপায় আছে। বিশেষ কিছু খাবারকে নিজেদের রোজের ডায়েটে জায়গা করে দিতে হবে, তাতে শারীরিক কারণে মানসিক অবসাদের শিকার হওয়ার আশঙ্কা কমবে। অন্যদিকে নিজেকে এমন সব কাজে ব্যস্ত রাখতে হবে, যাতে মন-মেজাজ আনন্দে থাকে, তাহলেই ডিপ্রেশন থেকে মুক্তি

Spark.Live এ অনলাইন পরামর্শের জন্য ক্লিক করুন – https://spark.live/consult/keep-your-soul-happy-online-bangla-consultation-session-with-psychologist-somdutta-banerjee

ঘরে থেকেও ভালো থাকা যায়
আমরা হয়তো এতদিন আমাদের বাড়ির গুরুত্বটা সেভাবে বুঝতামনা, আনন্দ করা মানেই আমাদের কাছে ছিল বাইরে বেরোনো, বেড়াতে যাওয়া, সিনেমা দেখা, শপিং মলে যাওয়া ইত্যাদি। কিন্তু বেশ কিছুদিন ধরে এগুলো একেবারেই স্তব্ধ হয়ে গেছে। বাড়ির মধ্যে থেকেই আমাদের ভালথাকার রসদ খুঁজে বার করতে হচ্ছে, আর আমরা নতুন করে নিজেদেরকে চিনতে পারছি নিজের মনের মানুষটার আরও কাছাকাছি যেতে পারছি। যদিও চার দেয়ালের মধ্যে থেকে হয়তো মন কেমন হয় মাঝেমধ্যেই কিন্তু একটু অন্য ভাবে ভেবে দেখুনতো- নিজের বাড়িতে যে আনন্দটা করা যায় তা হয়তো বাইরের জগতের সঙ্গে করা যায়না। নিজের মা বাবা জীবনসঙ্গী এবং নিজের সন্তানকে নিজের সম্পূর্ণ সময়টুকু দেওয়ার মধ্যে যে অনাবিল এক তৃপ্তি আছে তা অন্য কিছুতেই খুঁজে পাওয়া যায়না।

Spark.Live এ অনলাইন পরামর্শের জন্য ক্লিক করুনhttps://spark.live/consult/dietician-sharmishtha-roy-dutta-advice-on-various-nutrition-mantras

ডিপ্রেশন দূর করার জন্য সঠিক ডায়েট একান্ত জরুরি
আপনি হয়তো ভাবছেন মন খারাপের সঙ্গে আবার ডায়েটের কি সম্পর্ক? কিন্তু এটা খুব সত্যি কথা যে ডায়েটের উপর আমাদের মনের যাবতীয় অনুভূতির সম্পর্ক রয়েছে। ডিপ্রেশনে অনেকের খিদে কমে যায় এবং ওজন অস্বাভাবিকভাবে কমতে থাকে আবার কিছু ক্ষেত্রে ডিপ্রেশনের ফলে মানুষেরা অতিরিক্ত খাওয়া শুরু করেন তারা মনে করেন হয়তো খেলেই তাদের ডিপ্রেশন দূর হবে এই ভেবে প্রচুর চকলেট,ফাস্ট ফুড এসব জাতীয় খাবার খেতে থাকেন যা তাদের ডিপ্রেশনকে কমানোর বদলে অতিরিক্ত মাত্রায় বাড়িয়ে দেয় সঙ্গে ওজনও বৃদ্ধি হয় অনিয়ন্ত্রিত ভাবে। সেই কারণে রইলো এমন কিছু খাবারের সন্ধান যা আপনাদের শরীরকেও সুস্থ রাখবে এবং ডিপ্রেশন বা হতাশা কাটাতেও দারুন কাজ করবে।

কাজুবাদাম
কাজুবাদাম খেতে আমরা কে না ভালোবাসি বলুনতো? কিন্তু জানেন কি মানসিক অবসাদের চিকিৎসায় কাজু বাদামের জুড়ি মেলা ভার। কারণ, এতে উপস্থিত ভিটামিন বি এবং রিবোফ্লাভিন শরীরে প্রবেশ করার পরে বেশ কিছু পরিবর্তন হতে শুরু করে, যে কারণে ব্রেনের পাওয়ারতো বাড়়েই সঙ্গে মানসিক অবসাদের মতো সমস্যাও দূর হয় নিমেষেই।

Spark.Live এ অনলাইন পরামর্শের জন্য ক্লিক করুন https://spark.live/consult/mindfulness-online-session-in-bangla-with-priti-dey

গ্রিন টি
ওজন কমানোর জন্য গ্রিন টি এক দারুন অপশন, কিন্তু দিনে দুকাপ করে গ্রিন টি পান করলে মানসিক অবসাদের মতো সমস্যা ধারেকাছেও ঘেঁষতে পারে না। কারণ, এই গ্রিন টিতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং নানা উপকারী অ্যামিনো অ্যাসিড যা খুব তাড়াতাড়ি মনকে ভালো করে তোলে সঙ্গে স্ট্রেস এবং অ্যাংজাইটির মতো সমস্যারও সমাধান হয়ে যায় সহজেই।

Spark.Live এ অনলাইন পরামর্শের জন্য ক্লিক করুন https://spark.live/consult/reduce-stress-anxiety-fear-depression-through-psychological-counselling-srimonti-guha

চর্বিযুক্ত মাছ
নিয়মিত চর্বিযুক্ত মাছ খেলে শরীরে ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিডের পরিমাণ বাড়তে শুরু করে, যে কারণে মানসিক অবসাদ, স্ট্রেস, অ্যাংজাইটি এবং ইনসমনিয়া বা অনিদ্রার মতো সমস্যায় পড়ার আশঙ্কা প্রায় বহু শতাংশ কমে যায়। সেই সঙ্গে ব্রেনের ক্ষমতাও বৃদ্ধি পায় চোখে পড়ার মতো। তাই অবশ্যই নিজেদের রোজকার খাদ্যতালিকায় সঙ্গে রাখুন বেশ কিছু চর্বিযুক্ত মাছ।

Spark.Live এ অনলাইন পরামর্শের জন্য ক্লিক করুনhttps://spark.live/consult/online-mental-health-counselling-in-bangla-with-ankhee-gupta

দারচিনি
যদিও আমরা মূলত বাঙালিরা রান্নাতেই দারচিনির ব্যবহার করি বেশিমাত্রায়, গরম মশলার মূল উপকরণটি হল দারচিনি। কিন্তু জানেন কি এই দারচিনি পারে আপনার মনের জমে থাকা অবসাদকে দূর করতে? এক কাপ জলে পরিমাণমতো চা পাতা এবং এক চামচ দারচিনি গুঁড়ো মিশিয়ে মিনিটদশেক জলটা ফুটিয়ে নিয়ে ছেঁকে ফেলুন, তারপর সেই চা পান করুন। নিয়মিত দারচিনি গুঁড়ো মিশিয়ে চা পান করলে শরীরে এমন কিছু উপকারী উপাদানের মাত্রা বাড়তে শুরু করে, যার প্রভাবে ব্রেন সেলের ক্ষমতা এতটাই বেড়ে যায় যে মানসিক অবসাদের প্রকোপ কমতে থাকে খুব সহজেই এবং তারসঙ্গে ওজন ও নিয়ন্ত্রণে রাখা যায় এই দারচিনিযুক্ত চা পান করলে।

Spark.Live এ থাকছেন স্বনামধন্য বিশিষ্ট সব মনোবিদরা, যারা আপনাদের মনের যাবতীয় ডিপ্রেশন,স্ট্রেস ও অ্যাংজাইটি দূর করতে আপনাদের সহায়তা করবেন। Spark.Live এ অনলাইন পরামর্শের জন্য আপনারা লিংগুলিতে ক্লিক করে সরাসরি যোগাযোগ করে নিতে পারেন আমাদের সকল মনোবিদদের সঙ্গে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।