মনকে ভালো রেখে জীবন যুদ্ধে জয়ী হতে সহায়তা করবেন স্বনামধন্য সাইকোলজিস্ট প্রীতি দে (Renowned Psychologist Priti Dey will help you to keep your mind happy to win the batter of life)

আচরণ এবং মনের বিজ্ঞানকে Psychology বা মনোবিজ্ঞান বলা হয় । সচেতন এবং অচেতন ঘটনার পাশাপাশি বোধ এবং চিন্তাভাবনার অধ্যায়ন মনোবিজ্ঞানের অন্তর্ভুক্ত। আমেরিকান সাইকোলজিকাল অ্যাসোসিয়েশন অনুসারে মনোবিজ্ঞান হল মন এবং আচরণের অধ্যয়ন। মন কি ও তা কিভাবে কাজ করে এবং কিভাবে তা আচরণকে প্রভাবিত করে সেগুলোই মূলত আমাদের সাইকোলজিতে রয়েছে । মনোবিজ্ঞান মূলত মানুষের সাথে সম্পর্কিত, তবে অন্যান্য প্রাণীর ক্ষেত্রেও এটি ব্যবহৃত হয়।


মনোবিজ্ঞানকে সম্পূর্ণভাবে অধ্যায়ন করা কঠিন হওয়ার কারণে, মনোবিজ্ঞানীগণ প্রায়শই বিভিন্ন সময়ে এর বিভিন্ন অংশের দিকে নজর দেন। বিজ্ঞানের অন্যান্য ক্ষেত্রের সঙ্গে মনোবিজ্ঞানের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ও যোগসূত্র রয়েছে বয়স বাড়ার সাথে সাথে শিশুদের যে শারীরিক বৃদ্ধি ঘটে এবং এই শারীরিক বৃদ্ধির ফলে তার আচরণে যে পরিবর্তন সংঘটিত হয় তা শিশু মনোবিজ্ঞানের আলোচ্য বিষয়।শিশুর সামাজিক পরিবেশ বিশেষ করে তার পরিবার, সঙ্গী, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রভৃতি শিশুর ব্যক্তিত্ব বিকাশে প্রভাব বিস্তার করে। শিশুর শারীরিক, মানসিক,সামাজিক,নৈতিক বিকাশ প্রভৃতি সম্পর্কে আলোচনাই শিশু মনোবিজ্ঞানের মুখ্য উদ্দেশ্য। শিশু মনকে বোঝা এক মস্ত বড় দায়িত্ব, অনেক সময় অভিভাবকেরা সঠিকভাবে শিশুদের মনকে বুঝে উঠতে সক্ষম হন না , তখুনি এক অচেনা অজানা দূরত্ব সৃষ্টি হয় শিশুর সঙ্গে তার অভিভাবকের। কিছু সময়ে অল্প বয়সে ছেলে মেয়েদের বিপথে চালনা হতেও দেখা যায় ,যা কখনোই কাম্য নয়।

প্রীতি দে

বিশেষ করে বর্তমানে যে কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে আমরা যাচ্ছি, অনেকেরই স্ট্রেস, এংজাইটি পিছু ছাড়ছেনা কিছুতেই , হয়তো স্বামী স্ত্রী যারা ভীষণ ব্যস্ত থাকতেন তাদের নিজ নিজ কাজে কর্মে হটাৎ করে বাড়িতে এই ঘরবন্দি হয়ে থেকে দাম্পত্যের মধ্যেও নানারকম জটিলতা তৈরী হচ্ছে, একঘেয়েমির শিকার হচ্ছেন বহু মানুষেরা এবং #covid19#coronavirus এর ফলে আগামী দিনে যে মারাত্মক কঠিন পরিস্থিতি তৈরী হতে চলেছে কর্মক্ষেত্রে ও অর্থনৈতিক পরিস্তিতিতে তার কারণেও বহু মানুষের মনেই এক অজানা দুঃশ্চিন্তা বাসা বাঁধছে। যার ফলে মানসিক ও শারীরিক সব দিক থেকেই অসুস্থ হয়ে পড়ছেন বহু মানুষেরা।


ঠিক এইরকম মুহূর্তে প্রয়োজন এমন একজন মানুষের যে মনের বোঝা হালকা করে নতুন পথের দিশা খুঁজতে আমাদের সাহায্য করবেন, আমাদের প্রয়োজন হয় এমন একজন মানুষের যাকে মন খুলে সবটুকু সমস্যা উজাড় করে বলা সম্ভবপর হবে, তাই আমরা অনেকেই বিভিন্ন সময় সাইকোলজিস্ট এর দ্বারস্থ হই , বন্ধুর মতো নিজেদের সমস্যা নিজের সন্তানের সমস্যা ভাগ করে নিয়ে তার সমাধানও করে ফেলি খুব সহজেই।

প্রীতি দে

প্রীতি দে – এমন একজন সাইকোলজিস্ট যিনি মানুষের পাশে থেকে তাদের সঙ্গে আন্তরিক এক যোগসূত্র স্থাপনের মাধ্যমে মনের সবরকম সমস্যার সমাধানের জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন, বিগত ১০ বছর ধরে তিনি একজন কনসালটেন্ট মনোবিদ এবং স্পেশাল ট্রেনিং কলেজের অতিথি অধ্যাপিকা। রামকৃষ্ণ বিবেকানন্দ মিশনের ডেফ এন্ড ডাম্ব ব্লাইন্ড ছেলে মেয়েদের নিয়েও কাজ করেছেন, বর্তমানে সমাজের মূল স্রোত থেকে হারিয়ে যাওয়া ছোট ছোট ছেলে মেয়েদের সমাজের মূল স্রোতে ফিরিয়ে আনার কাজে ব্রতী। অনেকসময় মানুষ বেঁচে থাকার কারণ খুঁজে পাননা এতটাই মনের অসুখে ভোগেন, ঠিক সেরকম মুহূর্তে প্রীতি দে-র মতন একজন মনোবিদের সাহায্যে নিজেদের জীবনের সঠিক মূল্য আমরা খুঁজে পেতে পারি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।