গোপালের কৃপাদৃষ্টি বজায় রাখতে পূজা করার কিছু নিয়ম নিধি (Puja Rituals Of Bal Gopal)

  • by

প্রথমেই যে বাড়িতে গোপালের মূর্তি স্থাপন করা হবে, সেই বাড়ির প্রত্যেক সদস্যরা নিজে স্নান না করে এবং ভগবানকে স্নান না করিয়ে, ভোগ না দিয়ে, কখনও নিজেদের খাওয়া উচিত নয়। পুজোর পর গোপালকে স্নান করিয়ে ভোগ খাইয়ে ওই ভোগ নিজেরা খান।

যেখানে আপনি গোপালের মূর্তি প্রতিষ্ঠিত করেছেন, সেইখানে তুলশি কাঠের মালা অবশ্যই দরকার। শুধু তাই নয়, আমরা যে ভোগ বা প্রসাদ গোপালকে দেব সেই ভোগ ও প্রসাদে তুলশীর পাতা যেন অবশ্যই থাকে। কারন তুলশী ছাড়া ভগবান কোনো প্রসাদ গ্রহন করেন না।

গোপালকে পুজো দেওয়ার সময়, কোনো রকম অফিশিয়াল ড্রেস পড়ে পুজোতে বসবেন না। ধুতি পড়ে তবেই বসুন পুজোতে। গোপালের পুজোতে যে ফুল ব্যাবহার করবেন, খেয়াল রাখবেন সেই ফুল যেন তাজা হয়। বাসি ফুল দেবেন না।

পুজোর সময় প্রদীপে আমরা অনেকেই তেল ব্যবহার করি। তবে তেল নয় পুজোর সময় ঘি দিয়ে তবেই রোজ প্রদীপ জ্বালান। সকাল সন্ধয়ে দুই বেলাই প্রদীপ জ্বালাতে হবে। পুজো আগেই অনেকই প্রসাদ খেয়ে ফেলেন। তাদের ক্ষেত্রে এইটা কখনোই করা উচিত হবে না। এইটা করলেই ঘরের লক্ষ্মী অসন্তুষ্টি হবে।

Spark.Live এ সেশন বুক করতে এখানে ক্লিক করুন

যেখানে গোপাল রাখা হবে সেইখানে ময়ূরের পালক রাখবেন। গোপালের এই ময়ূরের পালক খুবই প্রিয়। তাতে গোপাল সন্তুষ্টি হয়। শুধু তাই নয়, যেখানে গোপাল বিরাজমান যেখানে অবশ্যই ভগবত গীতা রাখা প্রয়োজন। কারণ গীতাতে অর্জুনকে দেওয়া কৃষ্ণের উপদেশ রয়েছে.

এমনকি আপনি কথাও ঘুরে যাচ্ছেন, দুই তিনদিনের জন্য, সেইখানে গোপালকে নিয়ে যান। এছাড়াও আপনি কিছুক্ষনের জন্য বাড়ির বাইরে থাকলেও, যে ঘরে গোপালের মূর্তি থাকবে, সেই ঘরে কখনই তালা লাগানো উচিত হবে না। কারন গোপালকে সাধারনত অর্থে, আমরা ছোটো বালক হিসাবে পুজো করি। ফলে তাকে একা রেখে কখনই যাওয়া উচিত নয়।

বিশেষত এই জিনিস গুলিই করলে, আপনি এবং আপনার পরিবার গোপালের কৃপা দৃষ্টি লাভ করতে পারেন। তাই এখন থেকে এইভাবেই পূজা করুন গোপালের। আপনার বাড়িতে গোপাল আছে?

Spark.Live এ সেশন বুক করতে এখানে ক্লিক করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।