জুতো মোজা থেকে বাজে গন্ধ বেরোয়, জেনে নিন কি করবেন (How to get rid of bad odor in shoes? )

  • by

খুব সুন্দর স্টাইলিশ জুতো কিনেছেন কিন্তু জুতো পরে বেরোনোর পরে যেই জুতোটি খুলে কোথাও বসলেন ব্যাস অমনি লজ্জার একশেষ ! ততক্ষুনে বাকিরা যা বোঝার বুঝে নিয়েছেন , এক বিচ্ছিরি গন্ধ আসছে আপনার পা থেকে, অফিসে এ বসে পা ঘেমে গেলেও জুতো খুলতে পারেননা লজ্জায় , এভাবেই তলানিতে পৌঁছে যায়- আপনার আত্মবিশ্বাস.

অনেকসময় আপনার পায়ের বাজে গন্ধই আপনার প্রতি মানুষের ব্যঙ্গ করার বিষয়বস্তু হয়ে ওঠে. কিন্তু আপনি চাইলেও এই সমস্যার সমাধান খুঁজে পান না. চিন্তা করবেননা, আপনার এইসকল মুশকিল আসান হবে খুব সহজেই-

১) জুতোতে দিন বেকিং সোডা –

জুতোর মধ্যে একটু বেকিং সোডা মিশিয়ে রাখুন , তারপরে জুতোর ভেতরটা মুছে পরিষ্কার করে জুতোটা পড়ুন দেখবেন একদম দুর্গন্ধ হবেনা পায়ে। তবে চামড়ার জুতোয় বারবার বেকিং সোডা ব্যবহার করবেননা।

২) মোজা ও বেকিং সোডা-

পুরোনো কোনো মোজাতে ২ চামচ বেকিং সোডা ভোরে বেঁধে জুতোর মধ্যে রাতে রেখে দিন পরদিন মোজাটা সরিয়ে জুতো পরে নিন দেখবেন সব দুর্গন্ধ ম্যাজিক এর মতো হাওয়া হয়ে যাবে।

৩) লবন-

স্নিকার্সকে দুর্গন্ধ মুক্ত রাখতে মাঝেমধ্যে সামান্য লবন ছিটিয়ে দিন , এক টুকরো কাপড়ে লবঙ্গ তেল লাগিয়ে জুতোর মধ্যে রেখে দিন সারা রাত। জুতোর দুর্গন্ধ দূর হবে.

৪)লবঙ্গ-

জুতোয় কয়েকটি লবঙ্গ ফেলে রাখলেও উপকার পাবেন. লবঙ্গ কিন্তু সুগন্ধির প্রতীক. কারণ দেখবেন, আমাদের মুখ থেকে বাজে গন্ধ বেরোলেও, আমরা লবঙ্গ মুখে দিই. সেরকমই জুতোর মধ্যে সারা রাত লবঙ্গ রেখে দিন. সকালের মধ্যে গন্ধ গায়েব.

৫) টি ব্যাগ-

ফুটন্ত জলে টি ব্যাগ ফেলে রাখুন দু মিনিট, টি ব্যাগ ঠান্ডা হলে তারপর জুতোর মধ্যে রেখে দিন, এক ঘন্টা পর জুতোর ভেতরের টি ব্যাগ সরিয়ে পরিষ্কার করে নিন ভালো করে মুছে নিন, দুর্গন্ধের পাশাপাশি দূর হবে জুতোয় থাকা ব্যাকটেরিয়াও, জুতো পড়ার আগে পায়ে বেবি পাউডার ব্যবহার করুন দুর্গন্ধ হবেনা পায়ে।

৬. প্রতিদিন মোজা পাল্টান-

এক মোজা বার বার পড়লে মানে না কেঁচে বার বার পড়লে, তার থেকে দুর্গন্ধ সৃষ্টি হয়. তাই মোজা পারলে প্রতিদিন প্লাটান বা দুই দিন অন্তর. ধরুন যেটি আজকে পরে গেলেন সেট বাড়ি ফিরে এসে ধুয়ে দিন. পরদিন অন্য জোড়া মোজা পড়ুন. এই ভাবেই কিন্তু জুতো বা মোজা তে গন্ধ হবে না.

৭. সুতির মোজা-

শুধু গন্ধ আটকানোর বা কমানোর জন্য নয়, সুতির মজার পায়ের স্কিনের জন্যও বেশ ভালো. অনেক সময় অন্য ফ্যাব্রিকের মজায় পায়ে দানা দানা বেরোয়. আবার চুলকানিও হয়. কিন্তু সুতির মোজা সেই দিক দিয়ে ভালো. কারণ পা ঘেমে গেলেও সুতির ফ্যাব্রিক তা শুষে নেয়.

তো আর জুতো বা মোজা থেকে গন্ধ বেরোনোর ভয় নেই. কারণ এই সামান্য পদ্ধতিটিগুলি মানলেই, গন্ধ আপনার পায়ের চারপাশে আসতে পারবে না.

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।