বাড়িতে থেকেই নিজেদের ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখবেন কিভাবে? (How to control your weight at home?)

করোনা আতঙ্কের মধ্যে এখন দিন কাটছে গোটা বিশ্বের। কেউই ব্যতিক্রম নন। ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে সকলের মধ্যেই। ফলে পরবর্তী পরিস্থিতি কী হবে, ভবিষ্যতে চলবে কীভাবে তা নিয়েও চিন্তা রয়েছে সকলের মধ্যেই। গৃহবন্দি অবস্থায় স্বাভাবিক রুটিনে থাকতে পারছেন না অনেকেই। নিয়ম মতো শরীরচর্চা বা ডায়েট ফলো করা যাচ্ছে না ফলে ওজন বাড়ছে অনিয়ন্ত্রিতভাবে। কীভাবে এই পরিস্থিতিতে ওজন কিভাবে নিয়ন্ত্রণে রাখবেন, তা নিয়েই আলোচনা করা যাক-

১) প্রোটিন খেতে হবে বেশি করে

Spark.Live এ বিশিষ্ট কনসালট্যান্ট ডায়েটিশিয়ান রিয়া বোস সাহার সঙ্গে অনলাইন সেশনের জন্যে লিংকটিতে ক্লিক করুন-https://spark.live/consult/healthy-and-tasty-food-consultation-by-riya-bose-saha-bengali
  • আমাদের অনেকেরই ধারণা আছে যে কম খেলে বা না খেয়ে থাকলে তাড়াতাড়ি ওজন কমে যায়, ধারণাটা কিন্তু সম্পূর্ণ ভুল। পেট খালি রাখলে ফ্যাট জমার সম্ভাবনা অনেক বেশি থাকে। আর শরীরে যথেষ্ট পুষ্টির অভাবে আপনি দুর্বল হয়ে পড়েন।
  • ফলস্বরূপ, আপনার ইমিউনিটি কমতে থাকে এবং অসুস্থ হবার সম্ভাবনা অনেক বেশি হয়ে যায়, তাই খাওয়া বন্ধ করবেন না কখনোই বরং খাবারে প্রোটিন যোগ করুন। বেশি করে প্রোটিন খেলে ওজন বাড়ার সম্ভাবনা কমে এবং প্রোটিন যেহেতু অনেক বেশি পুষ্টিকর, ফলে আপনার শরীরও ফিট থাকে অনেক বেশি।

২) প্রসেসড খাবার ক্ষতিকারক

Spark.Live এ বিশিষ্ট কনসালট্যান্ট ডায়েটিশিয়ান রিয়া বোস সাহার সঙ্গে অনলাইন সেশনের জন্যে লিংকটিতে ক্লিক করুন-https://spark.live/consult/healthy-and-tasty-food-consultation-by-riya-bose-saha-bengali
  • সত্যি কথা বলতে কি আমরা সবাই এখন এতটাই ব্যস্ত যে নিজেদের জন্য সময় বার করা খুব কঠিন, আবার রান্না করার সময় নেই অনেকের কাছে। তাই অনেকসময়ই আমরা প্রসেসড এবং ক্যান্ড খাবার খেয়ে নি, সময়ও বাঁচে আর খাবার গুলো খেতেও খুব একটা খারাপ না, কিন্তু আপনি কি জানেন যে এই প্রসেসড এবং ক্যান্ড খাবার আপনার কতটা ক্ষতি করছে? আর আপনি যদি ওজন কমাতে চান, তাহলে কিন্তু আপনার এই ধরণের খাবার একেবারেই খাওয়া উচিত নয়।

৩) হেলদি স্ন্যাক্স খেতে পারেন

Spark.Live এ বিশিষ্ট কনসালট্যান্ট ডায়েটিশিয়ান রিয়া বোস সাহার সঙ্গে অনলাইন সেশনের জন্যে লিংকটিতে ক্লিক করুন-https://spark.live/consult/healthy-and-tasty-food-consultation-by-riya-bose-saha-bengali
  • ওজন কমানোর জন্য উপযুক্ত খাওয়া দাওয়া করাটা খুব জরুরি, কিন্তু তা বলে যা ইচ্ছে তাই খেলে কিন্তু আপনার সমস্ত পরিশ্রম ব্যর্থ হবে। বিকেলের দিকে বা সন্ধ্যাবেলা যখন অল্প খিদে পায় তখন মনে হয় কিছু হালকা খাবার খাই, আর বেশিরভাগ সময়েই আমরা চিপস, চানাচুর বা তেলেভাজা কিছু খেয়ে ফেলি।
  • ওজন কমাতে চাইলে, তখন ডায়েটের দিকেও নজর দিতে হবে। ভাজার পরিবর্তে হেলদি স্ন্যাক্স খান যেমন- দই, শশা দিয়ে মুড়ি, বাদাম, ডিমসেদ্ধ এগুলো খেতে পারেন।

৪) মিষ্টি এড়িয়ে চলুন

Spark.Live এ বিশিষ্ট কনসালট্যান্ট ডায়েটিশিয়ান রিয়া বোস সাহার সঙ্গে অনলাইন সেশনের জন্যে লিংকটিতে ক্লিক করুন-https://spark.live/consult/healthy-and-tasty-food-consultation-by-riya-bose-saha-bengali
  • মিষ্টি খেতে আমরা অনেকেই ভালোবাসি আর মিষ্টি কিন্তু ওজন কমানোর পথে একটি বড় বাধা। মিষ্টি মানে যে কোনো রকমের মিষ্টিই – চিনি থেকে আরম্ভ করে ক্যান্ডি যে কোনো রকমের মিষ্টি জিনিস খাওয়া বন্ধ করুন।
  • যদি একান্তই খুব কষ্ট হয়, তাহলে মাসে একদিন অল্প ডেসার্ট খেতে পারেন, কিন্তু চা কফিতে চিনির পরিমান কমিয়ে ফেলুন, পারলে চিনি ছাড়া খান তাহলে উপকার পাবেন।

৫) বেশি করে জল খাওয়া প্রয়োজন

  • জল খেলে ওজন কমে কিন্তু তা বলে শুধু কি আর জল খেয়ে থাকতে হবে তা কিন্তু একদমই না। জল খাবার পরিমানটা বাড়াতে হবে, আর নির্দিষ্ট সময়ে জল খেতে। সকালে ঘুম থেকে উঠে ২ গ্লাস জল খান, এতে আপনার সিস্টেম ক্লিয়ার হয় এবং শরীরে জমে থাকা টক্সিন বেরিয়ে যায়। যখনই খাবার খাবেন, তার আগে এক গ্লাস জল খান, এতে আপনার পেট ভরা ভরা লাগবে এবং আপনি প্রয়োজনের তুলনায় বেশি খাবার খেতে পারবেন না।
  • তা ছাড়া অনেক সময় আমরা তেষ্টা পেলে সফ্ট ড্রিঙ্কস বা শরবত খেয়ে নি, তার বদলে জল খেয়ে তেষ্টা মেটান, এতে আপনার শরীরে এক্সট্রা ক্যালোরিও ঢুকলো না আবার তেষ্টাও মিটলো।

৬) পরিমিত ঘুম জরুরি

  • ওজন কমানোর জন্য এবং সঠিক ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য ঘুমোনোটা খুব প্রয়োজন। যদি ঘুম সম্পূর্ণ না হয়, তাহলে সারাদিন একটা ক্লান্তিভাব থাকে আর কোনো কাজ করতে ইচ্ছে করে না। আর আপনি কি জানেন, ঘুম কম হলে খিদেও বেশি পায়,তাছাড়া ঘুম কম হলে ওবেসিটির মত সমস্যাও আসতে পারে, তখন কিন্তু ওজন কমানো খুব কঠিন হয়ে উঠবে। তাই ঠিক সময়ে শুতে যান এবং সকালে তাড়াতাড়ি উঠুন।

৭) শরীরচর্চা করা মাস্ট

Spark.Live এ বিশিষ্ট কনসালট্যান্ট ডায়েটিশিয়ান রিয়া বোস সাহার সঙ্গে অনলাইন সেশনের জন্যে লিংকটিতে ক্লিক করুন-https://spark.live/consult/healthy-and-tasty-food-consultation-by-riya-bose-saha-bengali
  • ওজন কম করতে হলে একটু তো খাটতেই হবে, এক্সারসাইজ করাটা সে জন্য খুব দরকার। নিয়মিতভাবে কিছুক্ষুণ এক্সারসাইজ করুন, সেটা বাড়িতে ফ্রি হ্যান্ড এক্সারসাইজকরলেও খুবই ভালো। যোগ ব্যায়ামের কোনো বিকল্প হয়না, তাই দিনের মধ্যে কিছুটা সময় একটু বার করে যোগা করতে পারেন।
  • কিন্তু নিজেদের ডায়েট সম্পর্কে একটু সচেতন করার জন্য প্রয়োজন হয় সঠিক একজন ডায়েটিশিয়ানের সাহায্য নেওয়া, যিনি আমাদের ডায়েটের সকল বিষয়ে সঠিক টিপস দিয়ে আমাদের সুস্থ্য ও সুন্দর করে তুলবেন।
  • Spark.Live এ রয়েছেন একজন স্বনামধন্য কনসালট্যান্ট ডায়েটিশিয়ান রিয়া বোস সাহা, দীর্ঘ ৭ বছর ধরে তিনি ডায়েট নিয়ে বহু মানুষকে সচেতন করে চলেছেন এবং সঠিক ডায়েটের মাধ্যমে সুস্থ্যতার পথ দেখিয়ে চলেছেন। তিনি ফুড এন্ড নিউট্রিশনে মাস্টার্স করেন এবং ফার্স্ট ক্লাস ডিগ্রি প্রাপ্ত হন। কলকাতার Bellevue ক্লিনিক- এ তিনি ট্রেনি ডায়েটিশিয়ান হিসেবে যুক্ত ছিলেন এবং Charnock হাসপাতালেও তিনি ট্রেনি ডায়েটিশিয়ান হিসেবে বেশ কিছুদিন যুক্ত ছিলেন। Remedy হাসপাতালে কনসালট্যান্ট ডায়েটিশিয়ান হিসেবে কাজ করেছেন এবং ইন্টারন্যাশনাল গোল্ড জিম এও তিনি যুক্ত থেকেছেন একজন কনসালট্যান্ট ডায়েটিশিয়ান হিসেবে। বর্তমানে তিনি তার নিজস্ব প্রতিষ্ঠানে (Riya’s diet world) অনলাইন কাউন্সিলিং করছেন এবং ডায়েটিশিয়ান রিয়া যুক্ত হয়েছেন Spark.Live এ একজন অভিজ্ঞ কনসালট্যান্ট ডায়েটিশিয়ান রূপে। Spark.Live এ ওনার সঙ্গে অনলাইন কন্সালটেশন করে আপনারা আপনাদের ডায়েট সম্পর্কিত যেকোনো সমস্যার সমাধান করে ফেলতে পারেন খুব সহজেই।

Spark.Live এ বিশিষ্ট কনসালট্যান্ট ডায়েটিশিয়ান রিয়া বোস সাহার সঙ্গে অনলাইন সেশনের জন্যে লিংকটিতে ক্লিক করুন-https://spark.live/consult/healthy-and-tasty-food-consultation-by-riya-bose-saha-bengali

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।