ব্রাইডাল মেকআপ আজকাল বেশ খরচ সাপেক্ষ তা জানেন কি? (How Much Does Bridal Makeup Cost In Kolkata?)

  • by

বিয়ের দিন সব মেয়েরাই চায় যে জীবনের সব থেকে বেশি সুন্দর দিন হোক সেটা, আর সঙ্গে তাকে যেন দেখতে অপরূপ সুন্দরী লাগে সেটা সবার আগে স্বপ্ন থাকে মেয়েদের। বিয়ের মানে বোঝা যখন থেকে শুরু হয় প্রায় তখন থেকেই বিয়ের কোনে বেশে নিজেকে কেমন সাজাবে তাই নিয়ে মনের মধ্যে নানা প্ল্যানিং চলতেই থাকে। এভাবে যখন বিয়ের দিন ঠিক হয় প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই সাজগোজের ব্যাপারটা আগে ফিক্স করতে ব্যস্ত হয়ে পড়ি আমরা। কিন্তু আজকাল কলকাতায় ব্রাইডাল মেকআপ এর খরচ ঠিক কেমন সেই সম্পর্কে একটু আইডিয়া করে নি চলুন-

এখন প্রায় ১৫-২০ হাজার টাকা চার্জ নিচ্ছেন মেকআপ আর্টিস্টরা , তাও সেটা দূরত্ব আর কেমন সাজতে চাইছেন তার উপর নির্ভর করে। নয়তো এর মাত্রা আরো বেড়ে যায়।

ব্রাইডাল মেকাপ আসলে কি –

ব্রাইডাল মেকআপ মানে সাধারণত, চুলের স্টাইল, মেকআপ আর শাড়ী পোড়ানোকেই বলা হয়। আবার আপনি কোন ব্র্যান্ড এর মেকআপ লাগাবেন সেটার উপর এর খরচ বাড়বে, যত বেশি দামি ব্র্যান্ড চাইবেন সাজানোর খরচ ততই বেড়ে যাবে । কিছু কিছু মেকআপ আর্টিস্টরা আবার আলাদা করে চার্জ নেই – ফলস আই ল্যাশ , হেয়ার এক্সটেনশন এগুলোর জন্য। এবং বুকিং এর জন্য কিছুটা টাকা আগেই অ্যাডভান্স করে রাখতে হয়। নইলে পছন্দের মেকআপ আর্টিস্ট আপনি হাজার চাইলেও পাবেননা।

সব কিছুর মতোই মেকআপ আর্টিস্ট এর জন্য নিশ্চয়ই আপনার কিছু বাজেট বরাদ্দ আছে ।চেষ্টা করবেন তার মধ্যে আর্টিস্ট জোগাড় করতে।

1। এয়ার ব্রাশ মেকআপ

যাদের ত্বক তৈলাক্ত তাদের জন্য এটা খুব ভালোভাবে যাবে। তবে এটা খুব খরচসাপেক্ষ। এর দাম 15000/ থেকে 20000/।

2। এইচডি মেকআপ

এই মেকআপ সব রকম ত্বকের জন্যই ভালো তবে এয়ারব্রাশ এর মত বেশিক্ষণ থাকে না। এর দাম 6000/থেকে 12000/।

3। মিনারেল মেকআপ

ন্যাচেরাল উজ্জ্বল লুক চাইলে এই মেকআপ করাতে পারেন। এতে আপনার স্নিগ্ধতা বজায় থাকবে। বেশি ছড়া মেকআপ ও থাকবে না। এর দাম 4000/ থেকে 8000/ মধ্যে।

সাধারণত বিয়ের দিন ট্র্যাডিশনাল লুক টাই পছন্দ করে বেশীরভাগই মেয়েরাই। কিন্তু ইচ্ছে থাকলেও ভালো মেকআপ আর্টিস্ট দের কাড়ি কাড়ি টাকা দিয়ে বুক করার সাধ্য হয়তো নেই। তাহলে কি করবেন? তার জন্য উপায় রয়েছে অবশ্যই। চলুন একটু দেখে নেওয়া যাক-

বিয়ের দিন নিজের মেকাপ নিজেই করুন-

1। বিয়ের কিছু মাস আগে থেকেই যত্ন নেবেন নিজের skin। কোন ভাজাভুজি না খেয়ে ,ত্বকে রোদ না লাগিয়ে ,ঘরে থেকে ।ঘরোয়া রান্না খেয়ে, ফলমূল খেয়ে সুস্থ থাকার চেষ্টা করুন।

2। বিয়ের দিন মেকআপ শুরু করার আগে মুখে যত তেল, ময়লা আছে সেগুলো পরিষ্কার করে ধুয়ে নিন। মুখ ধুয়ে শুকনো করে মুছে নিন ।সেখানে ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন। ড্রাই স্কিনের মেকআপ একদম বসে না ,তাই skin আর্দ্র থাকা দরকার।

3। ময়েশ্চারাইজার এর পরের পদক্ষেপ হলো প্রাইমার লাগানো। প্রাইমার আপনার মুখে ফাউন্ডেশন ও কনসিলার এর জন্য একটা স্মুথ বেস তৈরি করে। যার জন্য আপনার মুখের মেকআপ দীর্ঘস্থায়ী হয়।

4। মুখসহ কান, গলা, ঘাড় স্পঞ্জ বা ব্রাশ ব্যবহার করে ফাউন্ডেশন লাগান তাতে মেকআপ সুন্দর হবে।

5। মুখের দাগ ছোপ ঢাকতে কনসিলার ব্যবহার করুন।

6। মুখের মেকআপ যাতে ভালো করে বসে তার জন্য মিহি লুজ পাউডার ব্যবহার করুন। চোখের তলায় ও জলাইনে পাউডার লাগিয়ে নিন খানিকক্ষণ রেখে ব্রাশ দিয়ে মুছে নিন।

7। ঝকঝকে এবং ঝলমলে দেখতে লাগার জন্য মুখের হাইপয়েন্ট যেমন কপালের মাঝখানে ,ভ্রুর উপরে, নাকের উপরে ,chin বা থুতনি তে হাইলাইট করুন। হাইলাইটার দিয়ে।

বিয়েটা একবারই হবে, তাই সবকিছু পারফেক্ট করার সঙ্গে সঙ্গে নিজেদের বিয়ের সাজটাও পারফেক্ট হওয়া জরুরি, তাই যেমন ভাবে ইচ্ছা সাজুন। কারণ দিনটি বার বার ফায়ার আসবে না, আর এই ভাবে সাজুগুজুর পালাও একবারই আসবে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।