চুল পড়ার সমস্যা থেকে বাঁচতে ফলো করুন এই টিপসগুলি (Five herbs that control hair fall)

যে মরশুমই হোকনা কেন, আমাদের এখন নিত্য দিনের সমস্যায় পরিণত হয়েছে, অগণিত চুল পড়া. সকালে উঠে, কিংবা, স্নানের পর চুলে চুরুনী দেওয়া মাত্র, সহস্র চুল উঠে আসছে. রীতি মতো টাক পড়ে যাওয়ার মতো পরিস্থিতি. যদিও এর পিছনে অনেকগুলি ফ্যাক্টরকে কারণ বলে গণ্য করা হয়. যেমন- হরমোনের তারতম্য, বাজে খাদ্যাভ্যাস, স্ট্রেস বা বাজে লাইফস্টাইল. কিন্তু কারণ যাই হোকনা কেন, এইভাবে চুল ঝরে যেতে তো আর দেওয়া যায় না.

বাড়িতেই শুরু করুন, কিছু ঘরোয়া টোটকা, যেগুলি শুধু আপনার চুল পড়া কমাবে না, সাথে চুলকে দেবে একটি স্বাস্থ্যজ্বল লুক্স.

বাড়ির কোন কোন উপকরণ ব্যবহার করা যায়, চলুন দেখেনি-

১. নিম-

আগেকার দিনের মানুষরা পুরোপুরি বিশ্বাস করতেন এই উপাদানটির ওপর, আর তাদের চুল দেখলেই বোঝা যেত, এইগুলি কতটা উপকারী. নারকেল তেলের মধ্যে কিছু নিম পাতা ফুটিয়ে, নীল তেল তৈরী করে নিতে পারেন. আবার একটি পাত্রে জল আর নিমপাতা দিয়ে ফুটিয়ে নিন., ঠান্ডা হলে, স্নানের পর মাথার চুলে, ওই জলটি দিয়ে দিন. মিনিট দুই থেকে তিন রাখুন.
নিমপাতা শুধু চুল পড়া কমাবে না, সাথে চুলের ঘনত্বও বাড়াবে.

২. মেথি-

রাতে মেথি দানা জলে ভিজিয়ে রেখে, পরদিন সকালে তা মিক্সিতে গ্রাইন্ড করে নিন. আর তাতে মেশান সামান্য নারকেল তেল. এটিকে হেয়ার পেস্ট হিসেবে ব্যবহার করুন. একঘন্টা রাখুন, তারপর চুল শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন.

৩.রোজমেরি এসেন্সিয়াল অয়েল-

এটি স্কাল্প বিশেষ করে ড্ৰাই স্কাল্পকে ঠিক করে, আর ড্যানড্রাফ এর সমস্যা দূর করে. এই তেলটি অন্য যেকোনো হেয়ার ওয়ালের সাথে ব্যবহার করে মাথায় সামান্য ম্যাসাজ করুন. ব্লাড সার্কুলেশন বাড়বে.

৪. কাড়ি পাতা-

এটি নিয়ে আর কি বলবো. ১৫ থেকে টো টি কাড়ি পাতা গ্রাইন্ড করে নিন. তাতে মেশান টক দই. চুলের গোড়া থেকে লেন্থ পুরোটাতেই লাগান. স্নানের আগে ২০ মিনিট রেখে শ্যাম্পু করে নিন.

৫. আমলা বা আমলকি-

আমলকির বিষয়টি মোটামুটি সকলেরই জানা. স্কিন থেকে শুরু করে চুল সবের জন্যই ভালো এই উপাদানটি. তবে চুলের জন্য একটু বেশিই উপকারী. আমলকির পাউডার সাজেই মেলে বাজারে. তাই বাজার থেকে আমলকির পাউডার কেনাটা খুব সহজ. এরপর একটি কাঁচের পাত্রে চার থেকে পাঁচ বড় চামচ আমলকির পাউডার নিয়ে, তার সাথে মেশান দুই চামচ পাতিলেবুর রস, আর সামান্য জল. সবটি মিশিয়ে একটি পেস্ট বানান. আঙ্গুল দিয়ে চুলের গোড়া থেকে এপ্লাই করুন. সাথে আঙ্গুল গোল গোল করে ঘুরিয়ে স্ক্যাল্পে হালকা ম্যাসাজও করুন. এইভাবেই রেখে দিন ১৫ থেকে ২০ মিনিট. তারপর শ্যাম্পু করে নিন. সপ্তাহে দুইবার করুন.

আর ভেবে সময় নষ্ট করবেন না. আবার বাজারের দামি প্রোডাক্ট এর জন্য নিজের পকেটের পয়সা খরচ করার কোনো দরকার নেই. এই টিপস গুলি ফলো করলে, চুল পড়ার সমস্যা অনেকটাই কমবে.

1 thought on “চুল পড়ার সমস্যা থেকে বাঁচতে ফলো করুন এই টিপসগুলি (Five herbs that control hair fall)”

  1. Pingback: মুখের সঙ্গে মানানসই হেয়ার কাট ! (Do makeover with a new haircut) - Spark.Live বাংলা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।