করোনা নিয়ে প্রচলিত গুজবগুলিতে কান দেবেন না (Coronavirus: Rumors and facts )

করোনা ভাইরাসের যে ভাবে আতংঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে তাতে সারা বিশ্ববাসী ভয়ের প্রহর গুনছেন প্রতিক্ষণ. এই বুঝি তারা বা তাদের পরিবারের কেউ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে পড়লেন. কোনোরকম সাবধানতা নিতে তারা পিছ পা হচ্ছেন না. তবে বলতেই হয় এই আতঙ্ককে মানুষের মনে আরো এক ধাপ বাড়িয়ে দিচ্ছে, কিছু চলতি গুজব.

এটা কিন্তু আমাদের খুব পরিচিত চিত্র, কোনো কিছু ট্রেন্ডিং টপিক বা চিন্তার বিষয় সামনে এলেই, একাংশ মানুষরা আছেন যারা বিষয়টির ঠিক ভুল যাচাইতে মাথা ঘামান না. এমনকি বিষয়টি নিয়ে জানার চেষ্টাও করেন না. কিন্তু বিজ্ঞের মতো আত্মবিশ্বাসের সাথে বিষয়টির সাথে নানারকম ভুল মন্তব্য করে মানুষকে বিভ্রান্ত করতে সিদ্ধহস্ত.

এবারেও কোরোনাকে নিয়ে এইরকম কিছু গুজব রটেছে সব জায়গায়, চলুন দেখা যাক সেগুলি কি-

১. গুজব-

মাস্ক পরে সরানো বা কমানো যাবে করোনা . আবার অনেকে বলেছেন মাস্ক একমাত্র করোনা ভাইরাস থেকে মানুষকে আক্রান্ত হতে বাধা দেবে.

ফ্যাক্ট-

একেবারেই না. হুয়ের থেকে পরিষ্কার ভাষায় জানানো হয়েছে- একমাত্র আপনি যদি COVID -19 এ আক্রান্ত হন বা আপনার মধ্যে যদি এটির কোনো সিম্পটম লক্ষ্য করা যায় তাহলেই আপনি মাস্ক পড়ুন, যাতে আপনার থেকে সংক্রমণ না ছড়িয়ে পরে. কিন্তু গুজব ওপর ভোর করে ক্রমেই বেড়ে চলেছে মাস্কের চাহিদা আর তারই সাথে আকাশ ছুঁয়েছে মাস্কের দাম.

২. গুজব-

নিয়মিত গরম জল ও লবন দিয়ে গার্গেল করলে COVID – 19 থেকে নিজেকে দূরে রাখা যাবে.

ফ্যাক্ট-

হু এই বিষয়েও পরিষ্কার জানিয়েছে- এটি কোনো গ্লান্ড জনিত বা টন্সিল জনিত সমস্যা নয়, যে বার বার গার্গেল করলে সেরে যাবে. এটি একটি ভাইরাস যা আপনার রোগ প্রতিরোধক ক্ষমতার ওপর আক্রমন হানছে.

৩.গুজব-

বেশি তাপমাত্রায় এই ভাইরাসটি ধ্বংস হয়ে যাবে ছড়াতে পারবে না.

ফ্যাক্ট-

এই ভাইরাসটিকে নিয়ে এখনো গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা. কিন্তু তাতে এইরকম কোনো ফ্যাক্ট এখনো সেইভাবে ডিক্লেয়ার করেননি কেউ. তাই এই তথ্যটি নিয়ে সংশয় থেকেই যাচ্ছে.

৪. গুজব-

মদ্যপান বা অয়ালকোহোল এই ভাইরাসটিকে শেষ করতে বা এর প্রকোপ থেকে বাঁচাতে সক্ষম.

ফ্যাক্ট-

এলকোহল প্রেমীদের কাছে কথাটি খুব পছন্দের হলেও, আসলে এর কোনো সত্যতা নেই. এলকোহল বেসড স্যানিটাইজার আমাদের হাত পরিষ্কার রাখতে সক্ষম কিন্তু আমাদের তার পান আমাদের ইমমুনিকে বাড়াতে একেবারেই সক্ষম নয়. বরং অতিরিক্ত মদ্যপান আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে আরো দুর্বল করে তোলে, যেটি এই সময়ে খারাপই.

৫. গুজব-

চিকেন খেলে করোনার প্রকোপ বাড়বে এটাই কিন্তু নিছক একটি গুজব.

ফ্যাক্ট-

চিকিৎসক থেকে শুরু করে গবেষকরাও বার বার বলছেন, চিকেন খাওয়াতে কোনো নিষেধাজ্ঞা নেই. কারণ চিকেনে এর কোনো প্রভাব নেই.

তাই গুজবে কান না দিয়ে আগে বিষয়টির সত্যতা যাচাই করুন. এমনি এমনি গুজবের জন্য আরো আতঙ্ক বাড়িয়ে তুলবেন না.

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।