ভারতের এক অন্যতম ঐতিহ্য শাস্ত্রীয় সংগীত (Classical music is one of the traditions of India)

গানের চেয়ে ভাল বন্ধু আর কেউ নেই কথাটা আপনি মানুন বা নাই মানুন, কথাটা কিন্তু সত্যি। আপনার আনন্দের দিনে সঙ্গে যিনিই থাকুক না কেন, দুঃখের দিনে আপনাকে সঙ্গ দেবে গান।

বাঙালি হল গান অন্ত প্রাণ। বাংলার গ্রাম গঞ্জ থেকে শুরু করে আধুনিক শহরের অলি গলি সর্বত্র ভেসে বেড়ায় সুর। বাঙালি বিয়েবাড়ির বাসর ঘর সম্পূর্ণ হয় না গান ছাড়া। আর শুধু বাসর কেন, এখানে বিয়ের গান, ধান কাটার গান, ধান তোলার গান, দুঃখের গান,আনন্দের গান, প্রত্যেকটা ঋতুর গান, সব পাবেন। এই শহরে এমন মানুষ এখনও আছেন যারা প্রতি বছর সাড়ম্বরে পালন করেন কিশোরকুমারের জন্মদিন, কোকিলকণ্ঠী লতা মঙ্গেশকর বা কিন্নরকণ্ঠী আশা ভোঁসলে এই শহরে দেবী জ্ঞানে পূজিতা হন। গান বাঙালির মননে, গান বাঙালির রক্তে।

ভারতের আর কোন শহরে এই রেওয়াজটি আজও আছে কিনা জানি না, তবে ভোরবেলা আপনি যদি কলকাতা এবং আশেপাশের শহরতলীতে হাঁটতে বেরোন তাহলে আজও শুনবেন কোনও না কোনও বাড়ি থেকে গানের আওয়াজ অথবা বাদ্যযন্ত্র বাজানোর আওয়াজ ভেসে আসছে। ভোরবেলা উঠে গলা সাধা এবং যন্ত্রসঙ্গীতের রেওয়াজ করার প্রথা আজও কলকাতায় রয়ে গেছে।

ছোটবেলায় আপনিও হয়তো শুনে থাকবেন যে শাস্ত্রীয় সঙ্গীত না শিখলে গলা তৈরি হয় না। কথাটা যে অক্ষরে-অক্ষরে সত্যি তা আর বলে দিতে হবে না। গানের মধ্যে এমন এক শক্তি আছে যা মানুষকে ভালো রাখতে ভীষণভাবে সাহায্য করে। এমন একজন শিল্পীর কথা বলা যাক শাস্ত্রীয় সংগীত বললে যাঁর নাম আসবেই, তিনি হলেন সংগীত শিল্পী পিউ মুখার্জী।

শাস্ত্রীয় সংগীত শিল্পী পিউ মুখার্জী

Spark.Live এ স্বনামধন্য সংগীত শিল্পী পিউ মুখার্জীর কাছে গানের অনলাইন সেশনের জন্য লিংকটিতে ক্লিক করুন-https://spark.live/consult/learn-indian-classical-music-with-celebrity-singer-piu-mukherjee-bengali

স্বনামধন্য সংগীত শিল্পী পিউ মুখার্জী সংগীত জগতে প্রথম পা রেখেছিলেন তাঁর মা শ্রীমতি প্রদীপ্তা মুখার্জি এবং তাঁর দাদু বীরশ্বর মুখোপাধ্যায়ের হাত ধরে। পরবর্তীকালে তিনি সংগীতের সুরেলা পথের দিকে এগিয়ে যান এবং অধ্যাপক নীহার রঞ্জন বন্দোপাধ্যায় (রবীন্দ্র ভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন এইচ.ও.ডি) এর কাছে শিক্ষা লাভ করেন। এর পরেই তিনি প্রখ্যাত সংগীত সম্রাজ্ঞী পদ্মবিভূষণপ্রাপ্ত শ্রীমতী গিরিজা দেবীর সংস্পর্শে আসার সৌভাগ্য পান, গিরিজা দেবীর অধীনে তিনি তার কঠোর রেওয়াজ করে গেছেন। পিউ মুখার্জী এম.এ. তে প্রথম শ্রেণির প্রথম নির্বাচিত (ভোকাল মিউজিক) হয়েছিলেন রবীন্দ্র ভারতী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। তিনি তার পোস্টগ্রাডুয়েশন করেন ইসলামী ইতিহাস ও সংস্কৃতি নিয়ে এবং তিনি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বি.এড করেন। খুব অল্প সময়ের মধ্যেই তার ডেডিকেশন এবং প্রতিভাটি বিভিন্ন পর্যায়ে স্বীকৃত হয়েছিল যেখানে তিনি খেয়াল ও ঠুমরির জন্য সেরার খেতাব অর্জন করেছিলেন।

পেয়েছেন নানান পুরস্কার

তিনি জিতেছিলেন ১৯৯৯ সালে খেয়ালের জন্য পিটি কৃষ্ণ কুমার গাঙ্গুলি (নাটু বাবু) পুরষ্কার এবং শীঘ্রই তাকে সর্বভারতীয় রেডিও প্রতিযোগিতায় ঠুমরি / দাদরা / টপ্পাতে প্রথম স্থান দেওয়া হয়। ২০১৭ সালে তিনি নিউ দিল্লীর একটি সংগীত উৎসবে গিরিজা দেবী পুরস্কর (বিকশিত কালাকার) দ্বারা ভূষিত হয়েছেন।

তিনি খুবই ভাগ্যবতী ছিলেন তিনি গিরিজা দেবীর সঙ্গে একই স্টেজে পারফর্ম করার সুযোগ পেয়েছিলেন। তিনি দেশে বিদেশে বহু অনুষ্ঠানে পুরস্কৃত হয়েছেন, এমনকি তিনি একটি শীর্ষস্থানীয় মিউজিকাল রিয়েলিটি শো ‘জি বাংলা সা রে গা মা পা, ২০১৫-২০১৬ তে অংশগ্রহণ করেছিলেন এবং নিজেকে সংগীতের ক্ষেত্রে একজন বহুমুখী শিল্পী হিসাবে প্রমাণ করেছেন।

বাংলার মানুষেরা টেলিভিশনের পর্দায় তাঁকে দেখতে এবং তার গলায় গান শুনতে সদা আগ্রহী থাকেন, সব থেকে আনন্দের বিষয় হল বর্তমানে তিনি Spark.Live এ যুক্ত হয়েছেন আপনাদের আরও কাছাকাছি তিনি পৌঁছে যাবেন, Spark.Live এর মাধ্যমে অনলাইন সেশনের দ্বারা আপনারা সকলেই পিউ মুখার্জীর কাছে সংগীতের তালিম নিতে পারেন।

Spark.Live এ স্বনামধন্য সংগীত শিল্পী পিউ মুখার্জীর কাছে গানের অনলাইন সেশনের জন্য লিংকটিতে ক্লিক করুন-https://spark.live/consult/learn-indian-classical-music-with-celebrity-singer-piu-mukherjee-bengali

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।