২০২০ তে সরস্বতী পুজো নাকি দুদিন জানেন কি ? (Best sarees for Saraswati puja, 2020)

  • by

শীতকালের এক অন্যতম আকর্ষণ হলো সরস্বতী পুজো, স্কুল কলেজের ছাত্র ছাত্রীদের কাছে যেমন সব পুজোর থেকে সরস্বতী পুজোর গুরুত্ব সব থেকে বেশি, আর এই পুজো মানেই বাঙালির ভ্যালেন্টাইন্স ডে ও বলা যেতে পারে। আট থেকে আশি সকলের কাছেই এই দিনটা বেশ স্পেশাল , ছোটরা মা সরস্বতীর অঞ্জলি দিয়ে পরীক্ষায় ভালো রেজাল্ট এর কামনা করেন আবার তরুণ তরুণীরা এই দিনটা প্রেমে মজে থাকেন।

আচ্ছা সরস্বতী পূজার দিন কি শাড়ি পড়বেন বলে ঠিক করে রেখেছেন? যদি এখনো কিছু ঠিক না করে থাকেন, তাহলে আপনাদের জন্য আমাদের তরফ থেকে থাকলো কিছু শাড়ির সাজেশনস.

প্রথমেই বলি, প্রতিটি অকেশন এর আলাদা আলাদা অঘোষিত পোশাক থাকে. যেটা আমরা নিজ বুদ্ধি গুনে খুঁজে নি. যেমন স্বরস্বতী পূজার দিন আর যাই হোক ভুলেও, জিন্স পড়বেন না. আবার বেশি সাজুগুজুর চোটে লেহেঙ্গাও পরে বসবেন না, কারণ সেটা অনেকটাই অতিরিক্ত লাগবে.

চলুন দেখে নেওয়া যাক কি কি শাড়ি পড়বেন-

তাঁত-

সরস্বতী পূজার জন্য যেটা গতানুগতিক কাল থেকে স্টুডেন্ট দেড় মধ্যে প্রথম চয়েসের শাড়ি. বেশ লাল, হলুদ বা পছন্দের কোনো রঙের শাড়ির সাথে, সামান্য কিছু গয়নায় বেশ ভালো লাগে স্কুল পড়ুয়াদের.

জামদানি-

তাঁতের পরে আরেকটি শাড়ির অপশন যেটি একধারে স্কুল পড়ুয়া থেকে কলেজ পড়ুয়ারা বেশ পছন্দ করে সরস্বতী পূজা উপলক্ষ্যে সেটি হলো জামদানি. যেগুলি নরম জামদানি, সেগুলি পরে হাটা চলা করা সহজ. তাই এখন কিন্তু বেশিরভাগ মেয়েরাই এই শাড়ি পছন্দ করেন.

পিওর সিল্ক-

সব বয়সেই মানায় পিওর সিল্ক. অফিসের পূজা হোক, কিংবা স্কুলের শিক্ষিকারাও পড়ে যেতে পারেন পিওর সিল্ক. একটু গাম্ভীর্য ব্যাপার রয়েছে শাড়িটির মধ্যে.

কাঁথা স্টিচ-

এই শাড়ির কদর করেন এমন মহিলা খুব কম. যেহেতু, সরস্বতী পূজা হলো গতানুগতিক ও অভিনবত্বের মেলবন্দন, তাই এইদিনে কাঁথা স্টিচ পড়ার অভিজাত্যটাই আলাদা. অন্যরকম একটা ক্লাস বজায় থাকে. সাথে আর্টিফিসিয়াল জুয়েলারি. ব্যাস সাজ কমপ্লিট.

এই বছর আবার এই দিনটি নিয়ে রয়েছে ডাবল মজা, কারণ এবার দুদিন ব্যাপী পড়েছে সরস্বতী পুজো , মাঘ মাসের শুক্লা পঞ্চমী তিথিতে হয় বাগ্দেবীর আরাধনা, এই বছর পঞ্চমী পড়েছে ২৯ জানুয়ারী অর্থাৎ বাঙালির ১৪ই মাঘ , বুধবার সকাল ৮ টা বেজে ৮৭ মিনিট এ পুজো শুরু হচ্ছে এবং শেষ হবে ৩০ জানুয়ারী, ১৫ই মাঘ সকাল ১০টা ৫৬মিনিট পর্যন্ত। সুতরাং এবার পুজো শেষে মন খারাপ নয় , দুটো দিন ধরে সরস্বতী পুজো চুটিয়ে এনজয় করুন।

তো দুটো দিনই তার মানে খুব স্পেশাল. একদিন না হয় বন্ধু বান্ধবীরা মিলে ঘুরতে যান. ফিল্ম দেখে আসুন. আরেকদিন ঘনঘটা করে সেজে গুঁজে গতানুগতিক প্রথাতে শাড়ি পড়ে পূজা দিন, আর ভোগ খান. আমাদের জানতে ভুলবেন না, এইবারের পূজার জন্য আপনি কোন শাড়িটি বেছে রেখেছেন.

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।