দশটি লক্ষণ যা দেখে বুঝতে পারবেন আপনি পর্ন আড্ডিক্টেড কি না? (Are you addicted to porn?)

আপনি কি পর্ন ভিডিও দেখতে আসক্ত। কাজের থেকে ফায়ার রাতে ঘুমানোর আগে মাঝে সাঝে দেখাটা তো নরমাল। কিন্তু আপনার কি এইরকম হয়- যে রাতে পর্ন না দেখলে, কিংবা সারা দিনে একের অধিক পর্ন না দেখলে আপনার একটা অস্বস্তি হতে থাকে? কতগুলি অনেকেরই বোকা বোকা মনে হলেও, আদতে এটি এখন একটি বড় সমস্যায় পরিণত হয়েছে। এমনকি অনেকেরই দাম্পত্য জীবনে জুনো সঙ্গমে বড় বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে পর্ন ভিডিওতে আসক্তি। শুধু তাই নয়, হাজার চেষ্টা করেও, অনেকেই এই আসক্তি থেকে মুক্তি পাচ্ছে না। তবে এখন আপনার মনে হতে পারে, পর্ন ভিডিও দেখার আসক্তিতে আপনিও শিকার হয়েছেন, সেটি বুঝবেন কিভাবে? তার জন্য আমাদের তরফ থেকে থাকলো কিছু টিপস।

পর্ন ভিডিওতে আসক্তির লক্ষণ-

১।সঙ্গীর সাথে কথোপকথনের তুলনায়, ফাঁকা সময়ে এমনকি সঙ্গীর উপস্থিতিতেও আপনি পর্ন ভিডিও দেখাটাতেই বেশি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করবেন। সঙ্গীর সাথে যৌন সঙ্গমে লিপ্ত হওয়ার থেকে যদি একের পর এক পর্ন ভিডিও দেখাটাই আপনার বেশি পছন্দের হয়ে ওঠে, তখন বুঝতে হবে আপনি আসক্ত হয়ে পড়েছেন।
২। পর্ন ভিডিও দেখতে দেখতে, এমন একটা সময় আসে, যখন শারীরিক উত্তেজনা মেটানোর স্বার্থে, আপনি দিনে একের অতিরিক্ত ভিডিও দেখতে শুরু করেন। মাত্র একটা ভিডিওতে আপনার তৃপ্তি ঘটে না। এমনকি আপনার সঙ্গীর সাথে যৌন সম্পর্কিত কথা বলতেও আপনি ভালোবাসেন না।
৩। পর্ন সাইট ঘাটতে গিয়ে আপনি যদি একটা দীর্ঘ সময় কাটিয়ে ফেলেন, তবে স্বভাবতই সেটি আপনার কাজের, বা নিজের সময়ের অনেকটা সময় নষ্ট করে ফেলে। এমনকি মানসিক বিকার নিয়ে আসে।


৪। দিনের পর দিন নিজের সঙ্গীর পাশে শুয়েও যদি তার প্রতি যৌন সঙ্গমে আগ্রহী না হন, এমনকি আপনার সঙ্গী সরাসরি সেক্সের কথা বললেও নানা অজুহাতে আপনি এড়িয়ে যান, এবং তার পাশে শুয়ে তার অলোখ্যে সেক্স ভিডিও দেখতে এবং তার মাধ্যমে সোলো সেক্সে আগ্রহী থাকেন, তার মানে আপনি অবশ্যই পর্ন ভিডিওয়ের আড্ডিক্টেড।
৫। পর্ন ভিডিও দেখার স্বার্থে, অনেকটা সময় একা সকলের অলক্ষ্যে কাটানো। ঠিক সুযোগ মতো বেশ খানিকটা সময়, একা কাটাতে আগ্রহী হলে, সঙ্গে অবশ্যই যদি মুঠোফোন বা ল্যাপটপে সেক্স ভিডিও চলে, তাহলে পুরোটাই নিশ্চই আপনার কাছে পরিষ্কার।
৬। আপনি আপনার সঙ্গীর প্রতি আর আকৃষ্ট হন না- এটিও লক্ষণ বটে।
৭। সামান্য কথাতেই সারাদিনে বার কয়েক রেগে যান। কোনো ইয়ার্কি বা মজার কথাতেও রিএক্ট করে ফেলছেন। শুধু ফাঁকা সময় হলেই মাথায় ঘরে ভিডিওর কিছু দৃশ্যগুলি।


৮। কাজে অমনোযোগী, কিংবা বাড়ির দায়িত্বের প্রতিও অমনোযোগী। কাজে ফাঁকি দেওয়ার প্রবণতা।
৯। শরীরে ক্লান্তি চলে আসা। কোনো কাজ করতে গেলেই নিজেকে দুর্বল মনে হওয়া। এমনকি শরীরে যদি নানাবিধ ব্যাথা যন্ত্রনা বাড়তে থাকে, তাহলে তা কিন্তু আপনার পর্ন ভিডিওর আসক্তির কারণেই হচ্ছে। কারণ নিয়মিত পর্ন বিডি দেখাটা আপনার শহরের হরমোনের তারতম্য ঘটায়।
১০। আপনি যখন কোনো পর্ন ভিডিও দেখছেন, তখন সেখানে বর্ণিত কিছু ভঙ্গি আপনি আপনার সঙ্গীর কাছেও ডিমান্ড করেন। কিন্তু তা যদি করতে আপনার সঙ্গী এবং আপনি অক্ষম হন, তো আপনার জীবনে তা ডিপ্রেশনের সৃষ্টি করে।

বুঝতেই পারছেন কতটা ভয়ংকর রুপা ধারণ করে নিয়মিত পর্ন ভিডিও দেখা। কথায় আছে না- কোনো জিনিসই অতিরিক্ত ভালো নয়। সেটিই হলো কারণ। যদি এই লক্ষণগুলি আপনার দোনন্দিন জীবনে উপস্থিত হয়েছে, তাহলে আজই নিজের অভ্যেস পরিবর্তন করার চেষ্টা করুন।

1 thought on “দশটি লক্ষণ যা দেখে বুঝতে পারবেন আপনি পর্ন আড্ডিক্টেড কি না? (Are you addicted to porn?)”

  1. Pingback: যৌন সঙ্গমকালে শীঘ্র পতনের কারণগুলি কি জানেন? (Are you suffering from premature ejaculation?) - Spark.Live বাংলা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।