বাঙালি মেয়েদের সাথে প্রেম করার সুবিধা কি কি?

  • by

1. বড় বড় টানা টানা চোখের জন্য বহু যুগ ধরে বিখ্যাত বাঙালি মেয়েরা। তাদের চোখের গভীরতা এবং মোহনীয়তা হারিয়ে দিতে পারে যে কোনও পার্থিব সৌন্দর্যকে। একবার চোখের দিকে তাকালে আর চোখ ফেরাতেই পারবেন না। চোখের ইশারাতেই তারা সব বুঝিয়ে দিতে পারেন। 


2. ‘বিউটি উইথ ব্রেন’, এই কথাটি শুনছেন নিশ্চই? বাঙালি মেয়েরা অপরূপ সুন্দরী, আবার একই সঙ্গে তাদের বুদ্ধিমত্তার কোনো তুলনা হয়না।  নিজের সৌন্দর্যে যেমন আপনাকে বশ করতে পারবে, তেমনই আবার প্রয়োজনে বৃদ্ধিতে বাজিমাতও করবে আপনাকে। এরকম কম্বিনেশনের পার্টনার কে না চায় বলুন তো?


3. প্রেমের বিয়ে নিয়ে বাঙালিদের রোমান্টিসিজিমের কমতি নেই। বাঙালি মেয়েদের বাবা-মাও খুব কুল এবং হাসি খুশি প্রকৃতির মানুষ। তাই শ্বশুর-শাশুড়ীকে ইমপ্রেস করার জন্য খুব একটা বেশি কষ্ট করতে হয় না কোনো ছেলেকেই। প্রথম দিকে গম্ভীর মুখে কয়েকটা প্রশ্ন করলেও, তারপর মেয়ের বয়ফ্রেন্ডকে মেনে নেন তাঁরা, সচরাচর খুব সমস্যা তৈরি করেন না। 


4. বাঙালি মেয়েরা নিজেরা স্বাধীনচেতা বলে অন্যদের স্বাধীনতায় খুব একটা নাক গলায় না। সম্পর্কে স্পেস দিতে জানে তারা। তাছাড়া বেশ কিছু গবেষণা থেকে জানা গেছে যে বাঙালি গার্লফ্রেন্ডদের জীবনে গুচ্ছ গুচ্ছ দাবি নেই। একটা আইস ক্রিম বা ছোট্ট কানের দুল বা নিছকই একটা গোলাপ, সব গিফ্টেই সে খুব খুশি হয় এবং তার হাসি মুখ গ্যারান্টেড।


5. খেতে ভালোবাসে এমন গার্লফ্রেন্ড কে না চায় বলুন তো? কথায় বলে রসেবশে বাঙালি। খাবার ব্যাপারে বাঙালি মেয়েরা অক্ষরে অক্ষরে সেই ট্র্যাডিশন মেনে চলে। রাস্তার ধারের যে কোনও খাবারের দোকানে থেকেও খাবার খেতে সে কোনো রকম দ্বিধা বোধ করেনা।  রেস্তোরাঁয় গিয়ে নতুন নতুন খাবার ট্রাই করতে পিছুপা হয়না। শুধু খাবার খাওয়াই নয়, দেশী বিদেশী হরেক রকম খাবার বানাতেও ভালোবাসে বাঙালি মেয়েরা। আর স্বাদ তো মুখে লেগে থাকে বেশ কয়েকদিন ধরে। 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।